Mukul Roy
মুকুল রায়। ফাইল ছবি

ওয়েবডেস্ক: গত মঙ্গলবার তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা ঘোষণার পরই বিজেপিতে যোগ দেওয়ার কথা ছিল ভাটপাড়ার দাপুটে বিধায়ক অর্জুন সিংয়ের। তবে সে দিন দিল্লিতে মুকুল রায়ের হাত ধরে তৃণমূল ও সিপিএমের দুই বিধায়ক এবং তৃণমূলেরই এক বহিষ্কৃত সাংসদ বিজেপিতে যোগ দিলেও অর্জুন অনুপস্থিত ছিলেন। তবে বৃহস্পতিবার যে তিনিও শিবির বদল করতে চলেছেন, সে বিষয়ে জল্পনা ক্রমশ বাস্তবের দিকেই এগোচ্ছে।

[ আপটেড পড়ুন: তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে অর্জুন, এয়ার স্ট্রাইকে দলের অবস্থান থেকেই ক্ষোভের উৎপত্তি ]

মঙ্গলবার তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা ঘোষণার সময় দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় খোদ অর্জুন সিংকে বিশেষ দায়িত্ব দেওয়ার কথা বলেন। পাশাপাশি শোনা যায়, লোকসভা ভোট মিটে গেলে তাঁকে মন্ত্রিত্ব দেওয়ার কথাও চিন্তাভাবনা করছে দল। এর পর দিন গত বুধবারও তৃণমূল ভবনে যান অর্জুন। আর তার পরই ওই দিন রাত সাড়ে আটটা নাগাদ দিল্লিগামী বিমান ধরেন।

অর্জুন সিং। ফাইল ছবি

বিজেপি সূত্রের খবর, আগে থেকে জানানো সত্ত্বেও তৃণমূল বারাকপুর কেন্দ্রে তাঁকে প্রার্থী করেনি। অর্জুনকে বাদ দিয়ে বারাকপুরে দীনেশ ত্রিবেদীর জেতা সম্ভব নয় বলেই মনে করেন অর্জুন ও তাঁর অনুগামীরা। বুধবারও কালীঘাটে ৪২ প্রার্থীকে নিয়ে আয়োজিত বৈঠকের পর মমতা বলেন, “দু-জন প্রার্থী হওয়ার জন্য খুব লোভ করেছিল। কারা তাঁদের নিল, তাতে কিছু যায়-আসে না”। এর পরে আর কালক্ষেপ করতে চান না অর্জুন।

মঙ্গলবারের দলবদল

জানা গিয়েছে, অর্জুনের পাশে আছেন ভাটপাড়ার পুরসভার ২৮ জন কাউন্সিলর, হালিশহর পুরসভার ১১ জন কাউন্সিলর, নৈহাটির ৬ জন কাউন্সিলর এবং পানিহাটি ও খড়দহ পুরসভার একজন করে কাউন্সিল। অর্জুন তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে গেলে তাঁরাও দলবদল করবেন বলে অর্জুন-অনুগামীদের দাবি। যদিও এ দিন অর্জুন একাই সম্ভবত দিল্লিতে দলবদল করতে পারেন। দলবদলের পর সন্ধ্যায় মুকুলবাবুর সঙ্গে তাঁর কলকাতায় ফিরে আসার কথা।

[ আরও পড়ুন: বিজেপিতে যোগ দিলেন ২ বিধায়ক ]

গত মঙ্গলবার তৃণমূল বিধায়ক দুলাল বর, সিপিএম বিধায়ক খগেন মুর্মু এবং বহিষ্কৃত তৃণমূল সাংসদ অনুপম হাজরাকে দলে টেনে নেওয়ার পর মুকুলবাবু বলেছিলেন, “ইয়ে তো ট্রেলার হ্যায়। পিকচার অভি বাকি হ্যায়”।

এখন দেখার, ছবির শেষের ‘সিনটা’ কেমন হয়?

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here