কালো টাকা বন্ধ করার লক্ষ্যে ৩ লক্ষের ওপরে নগদ লেনদেন বন্ধ করতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত বিশেষ তদন্তকারী দল এই সুপারিশ করেছিল। 

এসআইটি আরও প্রস্তাব দিয়েছিল ১৫ লক্ষ টাকার বেশি নগদ কেউ নিজের কাছে রাখতে পারবেন না। কিন্তু এখনই এ ব্যাপারে কোনও সিদ্ধান্ত নিচ্ছে না কেন্দ্র। কারণ শিল্প ও বাণিজ্য মহল এ বিষয়ে তাদের আপত্তি জানিয়েছে। তাদের বক্তব্য, এমন কোনও আইন হলে আয়কর কর্মীদের জুলুম বাড়বে।

৩ লক্ষের বেশি টাকার ক্ষেত্রে ক্রেডিট কার্ড, ডেবিট কার্ড, চেক ও ড্রাফটের মাধ্যমে লেনদেনের নির্দেশ দিয়েছে সরকার। এর ফলে সহজেই যেকোনও লেনদেনের হিসাব রাখা এবং খুঁজে পাওয়া সম্ভব হবে। হদিশ মিলবে হিসাব বহির্ভুত টাকারও। গয়না ও গাড়ি কেনা বেচার ক্ষেত্রে নগদ টাকার লেনদেন করা হয়। সেগুলিরও হিসেব পাওয়া যাবে।

এতদিন ছোট সংস্থাগুলিকে কর্মীদের পারিশ্রমিক দেওয়ার মত নানা কারণে বেশ কিছু পরিমাণ নগদ হাতে রাখতে হত। কিন্তু দু’বছর আগে জন ধন যোজনায় বহু মানুষ ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট খোলায় এখন তআর তার প্রয়োজন নেই বলে কেন্দ্রের দাবি।  

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here