mumbai attack

মুম্বই: শত্রুকে বদনাম করলেই জয় আসে না। শত্রুকে বুঝতে গেলে আগে নিজেদের বোঝাটা খুবই জরুরি। ২৬/১১-এর স্মরণসভায় রবিবার এমনই বললেন অমিতাভ বচ্চন।

ইংরেজি দৈনিক ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের উদ্যোগে রবিবার এই স্মরণসভার আয়োজন করা হয় মুম্বইয়ে। ওই স্মরণসভায় উপস্থিত ছিলেন ২০০৮-এর ভয়াবহ মুম্বই হামলার শিকার হয়েছে এমন ৫২টি পরিবারের সদস্যরা। উপস্থিত ছিলেন অভিনেতা, গায়ক, রাজনৈতিক-সহ সমাজের সকল স্তরের মানুষও।

মহাত্মা গান্ধীর সত্যাগ্রহর প্রসঙ্গ নিয়ে এসে এই অনুষ্ঠানে অমিতাভ বলেন, “ভারতের ৭০ শতাংশ মানুষই মধ্যপন্থী। এই মধ্যপন্থী হওয়ার ফলে আমাদের বুঝতে হবে যে শুধুমাত্র শত্রুর নিন্দা বা বদনাম করাই আমাদের উদ্দেশ্য হতে পারে না। শত্রুর নিন্দা করলেই আমরা কখনও জিতব না। শত্রুদের বুঝতে গেলে আগে আমাদের নিজেদের বুঝতে হবে। নিজেদের বোঝা তখনই সম্ভব যখন আমরা এক সঙ্গে থাকা শুরু করব।”

এই অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবীস মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার ডাক দেন। তিনি বলেন, “মুম্বই বদলাচ্ছে। এখন নিরাপত্তা ব্যবস্থা আগের থেকে অনেক ভালো হয়েছে। নৌবাহিনীর জন্য সমুদ্রও এখন নিরাপদ। কিন্তু সাধারণ মানুষের দায়িত্বও রয়েছে। তারাই পুলিশকে সাহায্য করতে পারে। জঙ্গিরা এখন সারা বিশ্বে তাণ্ডব চালাচ্ছে। কিন্তু সাধারণ মানুষ যদি ঐক্যবদ্ধ থাকে, তা হলে এই ধরনের হামলা আটকানো সম্ভব।”

ফড়নবীসের কথায় উঠে আসে তুকারাম ওম্বলের প্রসঙ্গ, যিনি শুধুমাত্র একটা লাঠির সাহায্যে কাসবকে ধরতে পেরেছিলেন, এবং শেষে অন্য জঙ্গির গুলিতে প্রাণ হারান। ভবিষ্যতে এই ধরনের হামলা থেকে মুম্বইকে যাতে রক্ষা করা যায়, সে ব্যাপারে পণ করেন অনুষ্ঠানে উপস্থিত সব অতিথিই।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here