কলকাতা: ‘অগ্নিপথ’ প্রকল্পের বিরোধিতায় আজ, সোমবার তথা ২০ জুন ভারত বন্‌ধের ডাক দিয়েছে সেনায় চাকরি করার স্বপ্ন দেখা যুবসমাজ। আরও একাধিক সংগঠন এই বন্‌ধকে সমর্থন জানিয়েছে। তবে বন্‌ধের মধ্যেও পশ্চিমবঙ্গকে সচল রাখার নির্দেশিকা জারি করল নবান্ন।

রবিবার রাজ্যের সমস্ত জেলা প্রশাসন-সহ সমস্ত জোনের পুলিশকর্তাদের উদ্দেশে ওই নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। রেলকর্তাদেরও এই নির্দেশিকা পাঠিয়েছে নবান্ন। নির্দেশিকায় নবান্নের তরফে জানানো হয়েছে, প্রতিবাদের হাতিয়ার হিসাবে নীতিগত ভাবে বন্‌ধের বিরোধিতা করে রাজ্য সরকার। কারণ, তাতে সাধারণ মানুষের জীবন ও জীবিকায় প্রভাব পড়ে।

সে কারণে এই বন্‌ধের বিরোধিতায় যাবতীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। রাজ্যের কোথাও যাতে আইন-শৃঙ্খলার অবনতি না হয় অথবা অবাঞ্ছিত পরিস্থিতি সৃষ্টি না হয় তা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বন্‌ধ সমর্থনকারীরা বলপূর্বক কেন্দ্রীয় বা রাজ্য সরকারি অফিসকাছারি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অথবা দোকানবাজার বন্ধ করার চেষ্টা করলে তার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করা হবে। নির্দেশিকায় আরও জানানো হয়েছে, রাস্তাঘাটে যান চলাচল স্বাভাবিক রাখতেও সচেষ্ট রাজ্য সরকার। বন্‌ধের ফলে যাতে সাধারণ মানুষকে ট্রেন বা পথ অবরোধের মুখে পড়তে না হয়, সে দিকেও লক্ষ রাখবে রাজ্য সরকার।

আরও পড়তে পারেন:

‘অগ্নিবীর’রা বিজেপি অফিসে নিরাপত্তারক্ষীর চাকরি পেতে পারে! কৈলাস বিজয়বর্গীয়র মন্তব্যে নিন্দার ঝড়

রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী বাছতে শরদ পওয়ারের ডাকা বৈঠকে যাচ্ছেন না মমতা, যোগ দিচ্ছেন অভিষেক

‘অগ্নিপথ’ প্রত্যাহারের কোনো প্রশ্ন নেই, প্রকল্পের ব্যাখ্যা করে জানিয়ে দিল সেনা

অনুগামীদের চুপচাপ বসে যাওয়ার বার্তা, বঙ্গ-বিজেপিতে বিদ্রোহের আবহে দুধকুমারের পাশে অনুপম

বিহার জ্বলছে, বিজেপি-জেডিইউ নিজেদের মধ্যে লড়ছে! ‘অগ্নিপথ’ বিক্ষোভ নিয়ে মুখ খুললেন প্রশান্ত কিশোর

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন