নয়াদিল্লি: কোভিড-১৯ লকডাউনের (Covid-19 lockdown) কারণে দেশের পাঁচটি শহরে বিপজ্জনক বায়ু দূষণের মাত্রা অনেকটাই হ্রাস পেয়েছে।

গত ২৪ মার্চ করোনাভাইরাস (Coronavirus) সংক্রমণ প্রতিরোধে গোটা দেশে লকডাউন জারি করে কেন্দ্রীয় সরকার। কলকারখানা-অফিস থেকে শুরু করে সাধারণ যানবাহনও বন্ধ হয়ে যায়। বায়ুদূষণ কমার অন্যতম কারণ হিসাবে এই বিষয়গুলিকেই গুরুত্ব দিচ্ছেন পরিবেশবিদরা।

জরুরি কাজে বাইরে বেরোনো ছাড়া ১৩০ কোটি জনসংখ্যার দেশে লকডাউনের কড়াকড়ি কার্যকর হওয়ার পর থেকেই ধীরে ধীরে বায়ু দূষণকারী (air pollutants) উপাদানগুলির পরিমাণ কমতে শুরু করে।

কোন কোন শহরে?

দেশের পাঁচটি শহরের মধ্যে রয়েছে চেন্নাই, দিল্লি, হায়দরাবাদ, মুম্বই এবং কলকাতা।

ব্রিটেনের এক দল বিজ্ঞানীর পেশ করা এই সমীক্ষায় বলা হয়েছে, এর ফলে ৬৩০ জনের অকাল মৃত্যু (premature deaths) রোধ হয়েছে।

ব্রিটেনের সারে বিশ্ববিদ্যালয়ের (University Of Surrey) অধ্যাপক-গবেষক প্রশান্ত কুমার জানিয়েছেন, “কোভিড-১৯ মহামারি (Covid-19 pandemic) সারা বিশ্ব জুড়ে সাধারণ মানুষের জীবন-জীবিকার উপর ধ্বংসাত্মক প্রভাব ফেলেছে। কিন্তু উল্টো দিকে বায়ুদূষণের মাত্রাকে হ্রাস করেছে”।

লকডাউনে গবেষণা

গবেষণাটি প্রকাশিত হয়েছে সাসটেনবল সিটিজ অ্যান্ড সিটিজ (Sustainable Cities and Society) নামে একটি জার্নালে।

গবেষকরা যানবাহন বা যানবাহন ব্যতিরেকে অন্যান্য উৎস থেকে উৎপন্ন ক্ষতিকারক সূক্ষ্ম কণা বিষয় বা পিএম২.৫ (PM2.5)-এর ভিত্তিতে গবেষণাটি চালিয়েছেন। গত ১১ মে থেকে এই সমীক্ষাটি শুরু হয়।

গবেষক দলটি পিএম২.৫ বিতরণ বিশ্লেষণ করেছে এবং সারা বিশ্বের অন্য শহরগুলির সঙ্গে সেগুলির তুলনামূলক প্রাসঙ্গিক তথ্যের ফারাক বিশ্লেষণ করেছে।

লকডাউনের সময়কালে বায়ু দূষণের মাত্রার সঙ্গে একই মেয়াদে শেষ পাঁচ বছরের বায়ু দূষণের মাত্রার তুল্যমূল্য বিশ্লেষণ করেছেন সমীক্ষকরা। দেখা গিয়েছে, লকডাউনের সময় দিল্লিতে বাতাসে দূষণকারী কমাগুলির মাত্রা কমেছে ৫৪ শতাংশ, অন্য দিকে মুম্বইয়ে কমেছে ১০ শতাংশ।

তবে উল্লেখযোগ্য ভাবে ভিয়েনায় এই মাত্রা কমেছে ৬০ শতাংশ এবং সাংহাইয়ে কমেছে ৪২ শতাংশ।

প্রতীকী ছবি: ইন্ডিয়া টুডে থেকে

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন