ট্রেন দুর্ঘটনায় প্রাণহানির ক্রমেই বেড়ে চলেছে। এখনও পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৩৩। বিধ্বস্ত কোচগুলিতে এখনও অনেকে আটকে রয়েছেন। সুতরাং মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে অনুমান।

সেনা জওয়ান, পুলিশ এবং এনডিআরএফ-এর (ন্যাশনাল ডিজাস্টার রেসপন্স ফোর্স) কর্মীদের নিয়ে গঠিত উদ্ধারকারী দল এখনও সন্ধান চালিয়ে যাচ্ছে। যদি কেউ বেঁচে থাকেন, সেই আশায়। কিন্তু যত সময় যাচ্ছে, তার সম্ভাবনা কমে যাচ্ছে। ধ্বংসস্তূপ থেকে শুধুই মৃতদেহ।

দুর্ঘটনাস্থল কানপুর থেকে ৬০ কিমি দূরে পুখরায়ন গ্রাম। সেখানে এখন শুধু ক্রেন আর গ্যাস কাটারের সারি। সোমবার সকালেও জনতার ভিড়। তাঁদের মধ্যে অনেকেই ট্রেনযাত্রীদের আত্মীয়-পরিজন। তাঁরা অনেকেই খোঁজ পাচ্ছেন না আত্মজনের। ট্রেনের মধ্যে কী অবস্থায় আছে, জীবিত না মৃত, ভেবে কূল পাচ্ছেন না তাঁরা। তবু আশায় আশায় রয়েছেন তাঁরা।  

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন