tripple talaq bill

জৈসলমের: সুপ্রিম কোর্টের রায় বলছে ‘তিন তালাক’ অসাংবিধানিক এবং অবৈধ। তবু ‘দেড় হাজার বছরের পুরোনো ইতিহাস’ ঝেড়ে ফেলে এগোনো কি এতই সহজ? তা-ও আবার ভারতের মতো দেশে? অতএব ট্র্যাডিশন মেনে স্পিড পোস্টে এল ‘তালাক’। উত্তরপ্রদেশ থেকে ‘তালাক’-সমেত চিঠি এসছে পোখরানে স্ত্রীর কাছে। যথেষ্ট সুন্দরী নন স্ত্রী, বিচ্ছেদের কারণস্বরূপ চিঠিতে জানানো হয়েছে এটুকুই।

উর্দুতে লেখা চিঠি স্ত্রী-র কাছে এসে পৌঁছেছে সেপ্টেম্বরের পয়লা তারিখে, ঈদের দিনে। নিজের মা-বাবার সঙ্গে পোখরানের গ্রামের বাড়িতেই থাকেন স্ত্রী, যিনি প্রায় নিরক্ষর। তাই চিঠি লেখা হয়েছে পরিবারের অন্য সদস্যের উদ্দেশে।

মেরঠবাসী মহম্মদ আরশাদের সঙ্গে আড়াই বছরের বিবাহিত জীবন তাঁর স্ত্রী-র। প্রথম দিকে সব ঠিকঠাক থাকলেও কিছু দিন পর থেকেই স্ত্রী যথেষ্ট ‘সুন্দরী’ না হওয়ার কারণে অত্যাচার করতে থাকেন আরশাদ, সংবাদমাধ্যমকে এমনটাই জানিয়েছেন আরশাদের শ্বশুর ছোটু খান। প্রায়ই তাঁর মেয়ের গায়ে হাত তোলা হত বলেও অভিযোগ করেছেন তিনি।

দিন দুই আগেই আরশাদের বিরুদ্ধে ৪৯৮ ধারায় পণের জন্য অত্যাচারের অভিযোগ জানিয়েছিলেন তাঁর স্ত্রী। যদিও তখন তালাকের উল্লেখ করা হয়নি। অভিযুক্ত মহম্মদ আরশাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় এসপি গৌরব যাদব।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন