তৃপ্তি দেশাই

ওয়েবডেস্ক: সবরীমালা মন্দিরে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিলেন সমাজকর্মী তৃপ্তি দেশাই। পুলিশি নিরাপত্তা চেয়ে ইতিমধ্যেই কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নকে চিঠি দিয়েছেন তিনি।

এর আগে শত বিরোধিতা সত্ত্বেও মহারাষ্ট্রের কিছু মন্দিরে প্রবেশ করেছিলেন ভূমাতা ব্রিগেডের স্রষ্টা তৃপ্তি। মহারাষ্ট্রের শনি শিগনাপুর মন্দিরে প্রবেশ করতে দেওয়া হত না মহিলাদের। সেই মন্দিরে প্রবেশ করে পুজো দিয়ে শিরোনামে এসেছিলেন তিনি। এ বার তৃপ্তির লক্ষ্য সবরীমালা মন্দির।

তৃপ্তির কথায়, “কেরল থেকে বেরিয়ে যাওয়া পর্যন্ত যাতে আমরা পর্যাপ্ত পুলিশি নিরাপত্তা পাই সেই কারণেই চিঠি দিয়েছি মুখ্যমন্ত্রীকে। এখন থেকে আমাদের পথ আটকানোর জন্য হুমকি দেওয়া হচ্ছে। কেউ কেউ বলছে আমরা কেরলে ঢুকলে ফল ভালো হবে না। অনেকে আবার বলছে আত্মহত্যা করবে।”

আরও পড়ুন “নেহরুর জন্যই এক জন চা-ওয়ালা আজ ভারতের প্রধানমন্ত্রী”

উল্লেখ্য, সবরীমালা মন্দিরে সব বয়সি মহিলাদের প্রবেশাধিকারের নির্দেশ পুনর্বিবেচনার আর্জি সুপ্রিম কোর্ট গ্রহণ করলেও, আগামী বছর ২২ জানুয়ারি তার শুনানি হবে। তত দিন পর্যন্ত আগের নির্দেশে স্থগিতাদেশ দেওয়া হবে না বলে সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

গত ২৮ সেপ্টেম্বর একটি ঐতিহাসিক রায়ে সবরীমালা মন্দিরে ঋতুমতী মহিলাদের প্রবেশাধিকারের ওপরে নিষেধাজ্ঞা তুলে দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। তার পর দু’বার মন্দির খুললেও, দশ থেকে ৫০ বছরের কোনো মহিলা ওই মন্দিরে যেতে পারেনি। কেউ ঢুকতে গেলেই বিক্ষোভকারীদের বাধার মুখে পড়তে হয়েছে। এখন দেখার শনিবার থেকে আবার মন্দির খুললে কী অবস্থা হয়।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here