Biplab Kumar Deb
প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: একটি টেলিভিশন চ্যানেলের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব। সেখানে শারীরিক সক্ষমতার প্রসঙ্গে হালকা চালে করা প্রশ্নের জবাব দিতে তিনি যা করলেন, তা তাঁকে প্রতিদ্বন্দ্বী হিসাবে তুলে ধরতেই পারে কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী রাজ্যবর্ধন সিং রাঠোরের সঙ্গে। তাও অন ক্যামেরা।

ত্রিপুরায় রাজনৈতিক পালাবদলে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীপদে বসেন বিজেপির এই সুঠাম শরীরের নেতা। তবে বারংবার তিনি সংবাদ মাধ্যমের শিরোনামে উঠে এসেছেন তাঁর মুখনিসৃত বহুচর্চিত বক্তব্যের কারণে। তবে এ বার একেবারে অন্য প্রেক্ষাপট।

অনুষ্ঠানের সঞ্চালক সাংবাদিক তাঁর সঙ্গে শারীরিক সক্ষমতা নিয়ে আলোচনা করছিলেন। তারই প্রমাণ দিতে বিপ্লববাবু মঞ্চে এক নাগাড়ে ৪৫টা ডনবৈঠক দিয়ে ফেললেন। পাশাপাশি তিনি জানান, ‘‌শারীরিকভাবে সক্ষম না হলে কোনও কাজই করা সম্ভব নয়। আমিও ফিট থাকার জন্য নিয়মিত শরীরচর্চা করি। ১০–১৫ মিনিটে ১৫০টি ডনবৈঠক দিতে পারি।’‌

অনুষ্ঠানের শ্রোতাদের কাছ থেকেও আবেদন উঠে আসে তাঁর ডনবৈঠকের প্রমাণ দিতে। তখনই তিনি ওই ৪৫টা ডনবৈঠক দেন। তবে একই আবেদন উঠে আসে বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়র কাছেও। তিনি অবশ্য এই আবেদন সাড়া দেননি।

বিলম্ব-বিতর্কের পর পাঁচ রাজ্যের ভোটের দিন ঘোষণা কমিশনের

ওই অনুষ্ঠানে বিপ্লববাবু ত্রিপুরায় মাদক চোরাচালান রোধে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নেওয়ার কথা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, আগে ত্রিপুরায় মাদকের রমরমা ছিল। নতুন সরকার দায়িত্বে আসার পর তা রোধ করতে একাধিক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। গত কয়েক দিনে নজরদারি চালিয়ে ৫০ হাজার কেজি গাঁজা বাজেয়াপ্ত করতে সফল হয়েছে রাজ্যের পুলিশ-প্রশাসন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন