Biplab Deb
ফাইল ছবি

ওয়েবডেস্ক: ত্রিপুরা সরকারের প্রশাসনিক কর্তাদের জন্য ড্রেস কোড বেঁধে দিয়ে জারি করা হল নির্দেশিকা। গত ২০ আগস্ট দিনাঙ্কে জারি করা ওই নির্দেশিকায় বলা হয়ছে, কোনো প্রশাসনিক বৈঠক বা অনুষ্ঠানে জেলাশাসক, অতিরিক্ত জেলাশাসক বা অন্য যে কোনো প্রশাসনিক কর্তা জিন্‌স, কার্গো প্যান্ট এবং সানগ্লাস ব্যবহার করতে পারবেন না। এমনকী, বৈঠক বা অনুষ্ঠান চলাকালীন মোবাইল ফোন ব্যবহার থেকেও বিরত থাকতে হবে।

রাজ্যের রাজস্ব, শিক্ষা, তথ্য ও সংস্কৃতি দফতরের সচিব সুশীল কুমার সমস্ত জেলা শাসক-সহ প্রশাসনিক কর্তাদের কাছে বার্তা পাঠিয়ে বলেছেন, এ বার থেকে মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেব বা উপমুখ্যমন্ত্রী জিষ্ণু বর্মনের ডাকা কোনো সভায় হাজির হলে জিন্‌স, কার্গো প্যান্ট এবং সানগ্লাস বর্জন করবেন। এমনকী সঙ্গে থাকা মোবাইল ফোনটিও ব্যবহার করবেন না। কারণ, মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা চলাকালীন মোবাইল মেসেজ দেখলে সেটা অন্যান্যদের প্রতি অসম্মান প্রদর্শনের সমান।

সুশীল প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের কথা উল্লেখ করে বলেন, তিনি উপদেশ দিয়েছিলেন গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে কথা বলার সময় প্রশাসনিক কর্তারা যেন নিজের হাত পকেটের বাইরে রাখেন। সুশীল বলেন, বিগত তিন বছর কেন্দ্রীয় সরকারে কর্মরত থাকাকালীন তিনি কোনো আইএএস-কে দেখেননি জিন্‌স কিংবা ডেনিম শার্ট পরে বৈঠকে যোগ দিয়েছেন।


আরও পড়ুন: শেয়ার মার্কেটের সূচকগুলির রেকর্ড বৃদ্ধির নেপথ্যে রয়েছে গভীর কারসাজি!


রাজ্য সরকারের এমন বার্তার চরম বিরোধিতা করেছে বিরোধী দল সিপিএম। দলের রাজ্য সম্পাদক বিজন ধর বলেছেন, ড্রেস কোডের সঙ্গে সমাজের উন্নয়ন মূলক কাজের কোনো সম্পর্ক নেই। কে কী পোশাক পরবেন, সে ব্যাপারে যে কোনো মানুষেরই পূর্ণ স্বাধীনতা থাকা প্রয়োজন। এ ব্যাপারে সরকারের হস্তক্ষেপকে সিপিএম মোটেই স্বাগত জানাচ্ছে না।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন