ভোট চলাকালীন ত্রিপুরা নিয়ে বেনজির নির্দেশ সুপ্রিম কোর্টের

0
সুপ্রিম কোর্ট। ফাইল ছবি

নয়াদিল্লি: আগরতলা পুরসভা-সহ ত্রিপুরার ১৪টি পুরসভা এবং ছ’টি নগর পঞ্চায়েত মিলিয়ে মোট ২০টি স্থানীয় নাগরিক সংস্থার ভোটগ্রহণ চলছে বৃহস্পতিবার। একই সঙ্গে এ দিনই ত্রিপুরা হিংসা মামলার শুনানি হল সুপ্রিম কোর্টে। শুনানিতে ত্রিপুরায় আরও কেন্দ্রীয় বাহিনী পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রককে। বলা হয়েছে, পুরভোটে আরও ২ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করা হোক। 

এ দিন ভোট চলাকালীন বিভিন্ন জায়গায় ক্যাম্প অফিস ভাঙচুর, দলীয় কর্মীদের মারধর, অবাধ রিগিং, বুথ দখল করা হয়েছে বলেও অভিযোগ তুলেছে বিরোধীরা। যদিও ভোটগ্রহণ পর্ব ‘অবাধ এবং শান্তিপূর্ণ’ হচ্ছে বলে আদালতে দাবি করেছে ত্রিপুরা সরকার।

ভোটগ্রহণের আগে আদালতের নির্দেশে সেনসিবিলিটি ম্যাপিংয়ের পরই সবক’টি বুথকেই স্পর্শকাতর বলে চিহ্নিত করল নির্বাচন কমিশন। গতকাল রাজ্যের নির্বাচন কমিশন জানায়, মোট ৬৪৪টি কেন্দ্রের মধ্যে ৩৭০টিকেই অতি স্পর্শকাতর হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। বাকি ২৭৪টি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রকে স্পর্শকাতর।

তবে ত্রিপুরা সরকারের আইনজীবী মহেশ জেঠমলানী বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টে বলেন, “ত্রিপুরায় সুষ্ঠু এবং অবাধ পুরভোট হচ্ছে। রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবেই অশান্তির অভিযোগ তোলা হচ্ছে”।

অন্য দিকে, অভিযোগকারী পক্ষের আইনজীবী গোপাল সুব্রহ্মণ্যম আদালতকে বলেন, “সকাল ৭টায় ভোটগ্রহণ শুরু হওয়ার পরেই একের পর এক অশান্তির ঘটনা ঘটে চলেছে। তৃণমূল এবং সিপিএম প্রার্থীর উপর হামলা হয়েছে। মাত্র সাড়ে তিন ঘণ্টার মধ্যেই ভোটের বেশ কিছু ভিডিয়ো ফুটেজ সামনে এসেছে। তাতে স্পষ্ট, ভোটারদের বাধা দেওয়া হচ্ছে। নিরাপত্তা ব্যবস্থা যথাযথ না হওয়ার কারণেই এমন ঘটছে”।

উভয় পক্ষের বক্তব্য শোনার পর রাজ্য সরকারের সেই যুক্তি খারিজ করে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রককে দ্রুততার সঙ্গে ত্রিপুরায় অতিরিক্ত কেন্দ্রীয় বাহিনী পাঠানোর নির্দেশ দেয় সর্বোচ্চ আদালত।

আজকের আরও কিছু উল্লেখযোগ্য খবর পড়ুন এখানে:

কলকাতা পুরনির্বাচনের বিজ্ঞপ্তি জারি করল নির্বাচন কমিশন

কুড়ির নীচে কলকাতা, পুরুলিয়ায় পারদ চোদ্দোর ঘরে, ফের শীত শীত ভাব ফিরছে দক্ষিণবঙ্গে

টানা চার দিন দশ হাজারের নীচে দৈনিক সংক্রমণ, সক্রিয় রোগীর সংখ্যাও আরও পতন

উত্তেজনার আবহেই পুরভোট চলছে ত্রিপুরায়, গোটা আগরতলাই স্পর্শকাতর

সনিয়া গান্ধীকে নিয়ে মমতার মন্তব্যে কি দূরত্ব তৈরি হওয়ার ইঙ্গিত?

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন