বালাকোটের অভিযান নিয়ে জোরালো দাবি বায়ুসেনার দুই পাইলটের

0
IAF strike

ওয়েবডেস্ক: বালাকোটে জইশ ঘাঁটিতে বায়ুসেনার অভিযান পুরোপুরি সফল। এমনই দাবি করলেন ওই অপারেশনে থাকা বায়ুসেনা বাহিনীর দুই স্কোয়াড্রন লিডার। দু’জনেরই দাবি, “আমরা টার্গেট মিস করিনি।” ওই অভিযানে ইজরায়েলের দু’ধরনের অস্ত্র প্রয়োগ করার কথা ছিল বলে জানান তাঁরা। এক, স্পাইস ২০০০ (স্যাটেলাইটের মাধ্যমে চালিত এক ধরনের বোমা) এবং দুই, ক্রিস্টাল মেজ (যা লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত করার পাশাপাশি ধ্বংসের ছবিও প্রমাণ হিসাবে তুলে রাখে)।

প্রথম অস্ত্রটি অর্থাৎ স্পাইস ২০০০ তাঁরা প্রয়োগ করলেও, আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকায় দ্বিতীয়টি প্রয়োগ করতে পারেননি। তবে প্রথম অস্ত্রটি যে সঠিক টার্গেটে আঘাত করেছিল, তা নিয়ে তাঁরা নিশ্চিত। এক পাইলটের কথায়, “স্পাইস ২০০০ নিজের টার্গেটে আঘাত করেছে, সে ব্যাপারে আমাদের কোনো সন্দেহ নেই।” এই অস্ত্রটি কখনোই লক্ষ্যভ্রষ্ট হয় না বলেও দাবি তাঁর।

আড়াই ঘণ্টা ছিল অভিযানের মেয়াদ। যুদ্ধবিমান মিরাজ ২০০০-এর পাইলট তথা স্কোয়াড্রন লিডার সোজাসাপটাই জানিয়েছেন, এমন চ্যালেঞ্জিং একটা কাজের জন্য তাঁরা বেশ টেনশনে ছিলেন। এবং তা কাটাতে একটার পর একটা সিগারেট ধরিয়েছিলেন।

আরও পড়ুন দক্ষিণবঙ্গে হঠাৎ নিষ্ক্রিয় বর্ষা, সক্রিয় হবে কবে?

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত ১৪ ফেব্রুয়ারি, জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার প্রত্যুত্তরে ২৬ তারিখ পাকিস্তানের বালাকোটে হামলা চালায় ভারতীয় বায়ুসেনা। এই অভিযানে অসংখ্য জঙ্গির মৃত্যু হয় বলে জানিয়েছিল বায়ুসেনা।

যদিও বায়ুসেনার এই অপারেশন আদৌ কতটা সফল হয়েছিল, তা নিয়ে বিভিন্ন মহলে প্রশ্ন ওঠে। দুই পাইলটের এই দাবি, যাবতীয় জল্পনার অবসান ঘটাল বলেই মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন