bodh gaya

বুদ্ধগয়া: দলাই লামার সফরের মধ্যেই বুদ্ধগয়ায় তাজা বোমা উদ্ধারে চাঞ্চল্য ছড়াল। শুক্রবার রাতের ঘটনাটি ঘটেছে। পুলিশের মতে পর্যটকদের মধ্যে আতঙ্ক ছাড়নোর জন্যই এই কাজ করা হয়েছিল।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার রাতে প্রথমে একটি কম মাত্রার বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায়। সঙ্গে সঙ্গেই ঘটনাস্থলে গিয়ে আরও দু’টি তাজা বোমা উদ্ধার করে। পুলিশ জানিয়েছে, এটা কোনো জঙ্গি সংগঠনেরই কীর্তি। তবে বড়ো কোনো ক্ষয়ক্ষতি নয়, স্থানীয় মানুষ এবং পর্যটকদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়ানোই জঙ্গিদের উদ্দেশ্য ছিল।

এখনও পর্যন্ত বোমাগুলির চরিত্র সম্পর্কে পুলিশ কিছু স্পষ্ট ধারণা না দিলেও এগুলি কম মাত্রার বোমা ছিল বলে জানানো হয়েছে। উদ্ধার হওয়া বোমাগুলি এখনও নিষ্ক্রিয় করা হয়নি বলে জানিয়েছেন বিহার পুলিশের মগধ রেঞ্জের ডিআইজি নিরঞ্জন কুমার। তিনি বলেন, “জাতীয় তদন্তকারী দলের (এনআইএ) জন্য অপেক্ষা করা হচ্ছে। বোমাগুলিকে তদন্ত করে তারপর নিষ্ক্রিয় করা হবে।” ধারাবাহিক বিস্ফোরণের চেষ্টা এড়ানো গিয়েছে বলা জানিয়ছেন তিনি।

উল্লেখ্য, এই মুহূর্তে বুদ্ধগয়াতেই রয়েছেন তিব্বতি ধর্মগুরু দলাই লামা। ২ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত এখানকার দলাই লামা মন্দিরে থাকার কথা তাঁর। এই বোমা উদ্ধারের খবর চাউর হওয়ার পরেই বুদ্ধগয়ার নিরাপত্তা আরও বাড়ানো হয়েছে।

২০১৩ সালের ৭ জুলাই ধারাবাহিক বিস্ফোরণে কেঁপে উঠেছিল বুদ্ধগয়ার মন্দির চত্বর। সে বার মোট ১৩টি বোমা মন্দির চত্বরের বিভিন্ন জায়গায় রাখা হয়েছিল, যার মধ্যে ১০টির বিস্ফোরণ হয়েছিল। ঘটনায় পাঁচ জন আহত হয়েছিলেন।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here