উদ্ধব ঠাকরে। ফাইল ছবি

নয়াদিল্লি: সুপ্রিম কোর্টে হেরে গেলেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। আগামী বৃহস্পতিবার তাঁকে মুখোমুখি হতে হবে আস্থাভোটের।

বৃহস্পতিবার মহারাষ্ট্র বিধানসভায় উদ্ধব ঠাকরেকে শক্তি পরীক্ষার মুখোমুখি হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন রাজ্যপাল ভগত সিংহ কোশিয়ারি। সেই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল শিবসেনা। বুধবার টানটান সওয়াল-জবাবের পর সর্বোচ্চ আদালতে মান্যতা পেল রাজ্যপালের নির্দেশ।

রাজ্যপালের আস্থা ভোটের নির্দেশকে বেআইনি আখ্যা দিয়ে সেনার চিফ হুইপ সুনীল প্রভু সর্বোচ্চ আদালতে জানিয়েছিলেন, ৩৯ জন বিধায়কের মধ্যে ১৬ জনের বিধায়কপদ খারিজ করা নিয়ে স্পিকারের নোটিশকে আমল দেননি রাজ্যপাল।

অন্য দিকে, সুপ্রিম-শুনানিতে শিবসেনার আইনজীবী অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি দাবি করেন, স্পিকারের নির্দেশকেও মান্যতা দেওয়া উচিত। বিজেপি-র নির্দেশ মতো কাজ করতে পারেন না রাজ্যপাল। এনসিপির এক বিধায়ক কোভিড আক্রান্ত। দুই কংগ্রেস বিধায়ক বিদেশে রয়েছেন। এমনকী রাজ্যপাল নিজেও কোভিডে আক্রান্ত হয়েছিলেন। ফলে আগামীকাল আস্থা ভোট না হলে আকাশ ভেঙে পড়বে না।

যদিও সে সব যুক্তি ধোপে টিকল না সুপ্রিম কোর্টে। এ দিন বিকেল ৫টা থেকে শুরু হয় শিবসেনার আবেদনের শুনানি। প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টা ধরে শুনানি চলার পর রাত ৯টা নাগাদ বিচারপতি সূর্যকান্ত এবং বিচারপতি জেবি পাড়িয়ালার বেঞ্চ জানায়, রাজ্যপালের নির্দেশ মতোই ১১টায় বিধানসভার বিশেষ অধিবেশন শুরু হবে। আস্থাভোট শেষ করতে হবে বিকেল ৫টার মধ্যে।

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের পরই জানা যায়, রাত সাড়ে ৯টায় ফেসবুক লাইভে বক্তৃতা করবেন উদ্ধব। আস্থাভোটের আগের দিন তিনি মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে ইস্তফা দেবেন কি না, সেটা স্পষ্ট হতে পারে ওই অনুষ্ঠানে।

আরও পড়তে পারেন:

সিবিএসই, আইএসসিই দশম এবং দ্বাদশ শ্রেণির দ্বিতীয় টার্মের ফল কবে

উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণা করল কমিশন‌

চলতি করোনাস্ফীতিতে রোগীদের মধ্যে মাত্র একটাই উপসর্গই দেখতে পাচ্ছেন কলকাতার চিকিৎসকরা

ওয়েইসির ৪ বিধায়ক যোগ দিলেন আরজেডিতে, তেজস্বী যাদব কি মুখ্যমন্ত্রী হবেন? মহারাষ্ট্রের ডামাডোলে চর্চায় বিহারের পাটিগণিত

ডিজিকে দেখতে উত্তম কুমারের মতো! প্রশাসনিক বৈঠকের মঞ্চ থেকে বলে ফেললেন মুখ্যমন্ত্রী

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন