রাহুল গান্ধীর নামে নিজের সমস্ত সম্পত্তি লিখে দিলেন উত্তরাখণ্ডের বৃদ্ধা

0

দেহরাদুন: একের পর এক নির্বাচনে ধরাশায়ী দল। প্রশ্ন উঠছে রাহুল গান্ধীর নেতৃত্ব নিয়েও। তা সত্ত্বেও এই কংগ্রেস নেতার উপরই ভরসা করছেন উত্তরাখণ্ডের বৃদ্ধা পুষ্পা মুঞ্জিলাল। তাই নিজের স্থাবর-অস্থাবর সব কিছু রাহুলের নামে লিখে দিলেন তিনি। তাঁর সাফ কথা, “হয়তো তেমন জনপ্রিয় নন, কিন্তু রাহুল গান্ধী এক জন খাঁটি মানুষ।”

উত্তরখণ্ডের রাজধানী দেহরাদুনের বাসিন্দা পুষ্পাদেবী। বয়স ৭৮ বছর। রাহুলের নামে ৫০ লক্ষ টাকার সম্পত্তি এবং ১০ ভরি সোনা লিখে দিয়েছেন তিনি। দেহরাদুন আদালতে সেই মর্মে নিজের ইচ্ছাপত্রও জমা দিয়েছেন। তাতে জানিয়েছেন, তাঁর সমস্ত স্থাবর, অস্থাবর সম্পত্তির মালিকানা রাহুলের হাতে তুলে দিলেন তিনি।

আচমকা এমন সিদ্ধান্ত কেন জানতে চাইলে পুষ্পাদেবী জানান, রাহুলের ভাবনা-চিন্তা তাঁকে অনুপ্রাণিত করে। জনপ্রিয়তায় রাজীব-তনয় পিছিয়ে থাকলেও, তাঁকে প্রয়োজন দেশের। তাই নিজের সবকিছু হস্তান্তরের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি

সংবাদমাধ্যমে পুষ্পাদেবী জানান, রাহুল সাদাসিধে সরল মানুষ। আসলে রাহুলের স্ত্রীকেই গয়না দিয়ে সাজাতে চেয়েছিলেন তিনি। সেই সাধ পূরণ না হলেও, সব কিছু রাহুলকে দিয়ে দায়মুক্ত হতে চেয়েছেন। তাঁর বিশ্বাস, সঠিক কাজেই রাহুল টাকার সদ্ব্যবহার করবেন। তবে রাহুল নিজের ইচ্ছে মতো ওই টাকা খরচ করতে পারেন বলেও জানিয়ে দেন।  

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, খুড়বুড়ায় গুরুনানক ইন্ট কলেজে দীর্ঘ দিন শিক্ষকতা করেছেন পুষ্পাদেবী। এ ছাড়াও সমাজসেবামূলক কাজে নিযুক্ত ছিলেন। বিয়ে করেননি তিনি। বিগত ২০ বছর ধরে বৃদ্ধাশ্রমে রয়েছেন।

আরও পড়তে পারেন

রাজ্য বিজেপিতে ব্রাত্যই থাকলেন সায়ন্তন, এ বার বাদ পড়লেন কর্মসমিতি থেকেও

তিন বছরের মধ্যে কার্বন নিঃসরণে রাশ টানতে না পারলে ভয়ংকর বিপর্যয়, রাষ্ট্রপুঞ্জের রিপোর্টে উদ্বেগ

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন