the condition of the car

ওয়েবডেস্ক: অবশেষে খুশির খবর। দিল্লির এইমস হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হল উন্নাওয়ের নির্যাতিতা তরুণীকে। গত জুলাইয়ে ভয়াবহ দুর্ঘটনার পর কার্যত মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্চা লড়ছিলেন তিনি।

উল্লেখ্য, গত জুলাইয়ে ভয়াবহ একটি গাড়ি দুর্ঘটনায় আহত হন উন্নাওয়ের ওই নির্যাতিতা এবং তাঁর আইনজীবী। মৃত্যু হয় তাঁর দুই কাকিমার। বিজেপি বিধায়ক কুলদীপ সিং সেঙ্গারের বিরুদ্ধে আগেই ধর্ষণের অভিযোগ তুলেছিলেন নির্যাতিতা।

এমনকি দুর্ঘটনার দু’সপ্তাহ আগে প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈকে লেখা চিঠিতে নির্যাতিতা জানিয়েছিলেন তাঁর জীবন সংশয়ের কথা। জানিয়েছিলেন কী ভাবে সেঙ্গারের ঘনিষ্ঠরা তাঁদের হুমকি দিচ্ছেন।

কিন্তু চিঠিটা সঠিক সময়ে প্রধান বিচারপতি গগৈয়ের কাছে পৌঁছোয়নি। ব্যাপারটা জানাজানি হতেই নড়েচড়ে বসেন গগৈ। দ্রুত মামলার শুনানি শুরু হয় সুপ্রিম কোর্টে।

আরও পড়ুন ১৩ দিন বাদেও রাজীব কুমারকে কেন খুঁজে পাচ্ছে না সিবিআই?

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশমতোই গত ৫ আগস্ট লখনউ থেকে ওই তরুণীকে উড়িয়ে আনা হয় দিল্লিতে। ভরতি করা হয় এইমসে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ওই তরুণীর অভিযোগ ছিল, ২০১৭ সালে তাঁকে ধর্ষণ করেছিলেন কুলদীপ সিং সেঙ্গার। এই অভিযোগের ভিত্তিতে কুলদীপকে গ্রেফতার করা হলেও জেলের ভেতর থেকেই তিনি কলকাঠি নেড়ে গিয়েছেন বলে নানা মহলে অভিযোগ।

এমনকি নির্যাতিতার দুর্ঘটনার পেছনেও ওই বিধায়কেরই হাত রয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। তবে ওই তরুণী এখন অনেকটাই সুস্থ হয়ে ওঠায় এই ধর্ষণ মামলায় কী নতুন মোড় আসে সেটাই দেখার।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন