ওয়াশিংটন: নির্বাচনী প্রচারে তাঁর মূল বক্তব্যই ছিল, ক্ষমতায় এলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বাইরে যেতে দেবেন না চাকরি। নির্বাচন হল। বিপুল ভোটে জয়ী হলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। কিছুদিনের মধ্যেই ক্ষমতায় আসবেন। তবে এখনই যে আমূল কোনও পরিবর্তন ঘটছে না মার্কিন বাণিজ্য নীতিতে, তা স্পষ্ট। মঙ্গলবার ওয়াশিংটন পোষ্টে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, ওবামা প্রশাসন এবং মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতর তাদের যুদ্ধ বিমান তৈরি করতে চাইছে ভারতে। এই নিয়ে রীতিমত আলোচনা চলছে ভারত সরকারের সঙ্গে। সরকারের মেক ইন ইন্ডিয়া আহ্বানের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ এই প্রকল্প।

যুদ্ধবিমান প্রস্তুতকারক বহুজাতিক সংস্থা বোয়িং এবং ‘লখিদ মারটিন’ ভারত সরকারকে ইতিমধ্যেই প্রস্তাব দিয়েছে এফ-১৬ এবং এফ-১৮ যুদ্ধ বিমান বানানোর।  এমনকি ‘লখিদ মারটিন’, তাদের এফ-১৬ বিমান তৈরির পুরো ব্যবস্থাটাই টেক্সাস থেকে ভারতে স্থানান্তরিত করার প্রস্তাব দিয়েছে। সেক্ষেত্রে পৃথিবীতে একমাত্র এই দেশেই তৈরি হবে এক ইঞ্জিন বিশিষ্ট ওই যুদ্ধবিমান। বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন এই প্রস্তাবের পেছনে যথেষ্ট অবদান রয়েছে ওবামা প্রশাসনের। চলতি সপ্তাহেই ভারতে আসছেন মার্কিন প্রতিরক্ষা সচিব অ্যাস্টন কার্টার।

যুদ্ধবিমান তৈরির ওই দুই সংস্থা থেকে আশ্বস্ত করা হয়েছে, দু’দেশের মধ্যে চুক্তি চূড়ান্ত হলে মার্কিন নাগরিকের চাকরি খোয়ানোর সম্ভাবনা নেই। এতে বাড়তি কর্মসংস্থান হবে প্রায় ১০০০ ভারতীয়র। তবু যথেষ্টই চাপে রয়েছেন সংস্থায় কর্মরত মার্কিন কর্মীরা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here