দেহরাদুন: ফের তুষারধস উত্তরাখণ্ডে (Uttarakhand)। ধসের জেরে এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে অন্তত ১০ জন পর্বতারোহীর। মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

মঙ্গলবার সকালে ভয়াবহ ধসের জেরে উত্তরকাশীতে (Uttarkashi) ২৮ জন পর্বতারোহী আটকে পড়েছেন বলে জানা যায়। দুর্ঘটনার পরপরই বায়ুসেনার ২টি হেলিকপ্টার উড়ে যায় উত্তরকাশীতে। ধস বিধ্বস্ত এলাকা থেকে যাতে দ্রুত পর্বতারোহীদের উদ্ধার করা যায়, তার জন্য বায়ুসেনার চিতা হেলিকপ্টারকে পাঠানো হয় ঘটনাস্থলে।

ঘটনায় প্রকাশ, গঢ়ওয়াল হিমালয়ের ‘দ্রৌপদী কা ডান্ডা’ শিখরের অদূরে মঙ্গলবার সকাল ৯টা নাগাদ তুষারধসের ঘটনা ঘটে। উত্তরকাশীতে ধস নামার পর উদ্ধার কাজের জন্য যেমন বায়ুসেনার হেলিকপ্টার পাঠানো হয়, তেমনি ইন্দো-তিব্বত সীমান্তের জওয়ানরা এবং বিপর্যয় মোকাবিলাকারী দলও ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায়।

জানা গিয়েছে, দুর্ঘটনার কবলে পড়া পর্বতারোহীর উত্তরাখণ্ডের উত্তরকাশীর পর্বতারোহণ প্রশিক্ষণকেন্দ্র ‘নেহরু ইনস্টিটিউট অফ মাউন্টেনিয়ারিং’ (NIM)-এর শিক্ষার্থী ও প্রশিক্ষক। নিমের আধিকারিক কর্নেল অমিত বিস্ত, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জানান, দলে মোট ৩৪ জন ছিলেন। প্রায় ১৬ হাজার ফুট উচ্চতায় তুষারধসে চাপা পড় ১০ জনের দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ১৮ জন এখনও নিখোঁজ।

দু:খপ্রকাশ করে প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংহ বলেছেন, “ভূমিধসের কারণে প্রাণহানির জন্য গভীর ভাবে মর্মাহত আমি”। মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলার পাশাপাশি পরিস্থিতি পর্যালোচনাও করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী।

 পরিস্থিতির উপর অবিরাম নজর রাখছেন উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী পুষ্কর সিংহ ধামীও। তিনি কেন্দ্রকে ইতিমধ্যেই বিষয়টি জানিয়েছেন। প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং তাঁকে সব ধরনের সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন বলেও জানিয়েছেন হধামী।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন