যোগী রাজ্যে এ বার সাংবাদিককে বেধড়ক পেটাল পুলিশ, মুখে মুত্রত্যাগ!

শামলি: সাংবাদিককে গ্রেফতার করে ইতিমধ্যে সুপ্রিম কোর্টের রোষের মুখে পড়েছে উত্তরপ্রদেশ সরকার এবং সে রাজ্যের পুলিশ। সেই রাজ্যেই এ বার সাংবাদিককে বেধড়ক পেটানোর অভিযোগ উঠল পুলিশের বিরুদ্ধে। এই ঘটনার একটি ভিডিও ফুটেজও প্রকাশ্যে এসেছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে এক ব্যক্তিকে ঘুষি, থাপ্পড় মারার পাশাপাশি অশ্রাব্য ভাষায় গালাগালি দিচ্ছেন সাদা পোশাকের দুই পুলিশকর্মী।

পশ্চিম উত্তরপ্রদেশের শামলিতে একটি ট্রেন লাইনচ্যুত হওয়ার ঘটনার খবর করতে গিয়েছিলেন ওই ‘নিউজ ২৪’ টিভি চ্যানেলের সাংবাদিক অমিত শর্মা। তাঁর অভিযোগ, ওই খবর করার জন্যই পুলিশের রোষের মুখে পড়েন তিনি। তাঁর কথায়, “ওরা সাদা পোশাকে ছিল। একজন আমার ক্যামেরা ফেলে দেয়। আমি সেটা তুলতে গেলে গালাগালি দেওয়া হয়। আমাকে লকআপে পুরে নগ্ন করে অত্যাচার চালানো হয়েছে। আমার মুখে মুত্রত্যাগ করা হয়েছে।”

এই ঘটনার ব্যাপারে জানাজানি হতেই স্থানীয় সাংবাদিকরা অমিতের সঙ্গে দেখা করতে থানায় যান। তার পরে পুলিশের হাতে অমিতের নিগ্রহ হওয়ার ঘটনার ভিডিও ফুটেজ সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেন। এর পরে পুলিশের উচ্চস্থানীয় আধিকারিকদের সঙ্গে কথা বলেন ওই সাংবাদিকরা। তার পরেই নড়েচড়ে বসে পুলিশ। বুধবার সকালে অমিতকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন রাহুলের পরিবর্তে কংগ্রেসে দু’জন অন্তর্বর্তীকালীন সভাপতি?

ইতিমধ্যে অমিতকে নিগ্রহে অভিযুক্ত দু’জনকে সাসপেন্ড করেছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। এদের মধ্যে একজন থানার হাউস অফিসার, অন্য জন কনস্টেবল। তবে এই ঘটনার ব্যাপারে জানাজানি হতেই চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে সাধারণ মানুষের মধ্যে।

উল্লেখ্য, যোগী আদিত্যনাথকে নিয়ে ‘আপত্তিকর’ খবর করার জন্য গত শনিবার গ্রেফতার করা হয় প্রশান্ত কনোজিয়াকে। যদিও এই ঘটনায় মুখ পুড়েছে আদতে উত্তরপ্রদেশ সরকারেরই। রাজ্য সরকারকে ভর্ৎসনা করে অবিলম্বে প্রশান্তকে মুক্তির নির্দেশ দেয় শীর্ষ আদালত।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.