Panipuri
ছবি: ইন্টারনেট থেকে সংগৃহীত

আহমেদাবাদ: ভদোদরার বাসিন্দাদের জন্য খারাপ খবর তো বটেই। তবে দেশের অন্যান্য প্রান্তের ফুচকাপ্রেমীদের জন্য সতর্কতা বার্তাও বলা যায়। গুজরাত টাউনের এই পুরসভা ফুচকা বিক্রির উপর সাময়িক নিষেধাজ্ঞা জারি করল। বলা হয়েছে, ফুচকা (পানিপুরি বা গোলগাপ্পা)-য় ব্যবহৃত কিছু উপকরণে অস্বাস্থ্যকর দ্রব্যের হদিশ মেলায় পুরকর্তৃপক্ষ এমন সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছেন।

বর্ষার সময় জলবাহিত বেশ কিছু রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা যায় সর্বত্রই। পুরসভা স্বাস্থ্য বিভাগ প্রমাণ পেয়েছে, ফুচকার মধ্যে এমন কিছু উপকরণ ব্যবহার করা হচ্ছে যা এই বর্ষার সময় সাধারণ মানুষের শরীরে ডেকে নিয়ে আসছে টাইফয়েড, জন্ডিস এবং পেটের বহুবিধ রোগ। পুরসভার তরফে শহরের বিভিন্ন এলাকায় ফুচকার দোকানে হানা দেওয়া হয়। সেখান থেকে নমুনা সংগ্রহ করার পরেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

পুরসভার তরফে এ দিন কয়েক হাজার কেজি ফুচকা সমুদ্রের জলে ফেলে দেওয়া হয়। ফেলে নষ্ট করে দেওয়া হয় ময়দা মাখা, অবৈধ তেল, পচা আলু এবং দুর্গন্ধযুক্ত জল। পুরসভার তথ্য থেকে জানা গিয়েছে, ৫০টি দোকানে হানা দিয়ে ৪ হাজার কেজি ফুচকা, ৩,৫০০ কেজি আলু এবং ১,২০০ লিটার অ্যাসিড মেশানো জল বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

পড়তে পারেন: পচা ইলিশ বিক্রি হচ্ছে, সরাসরি মানিকতলা বাজারে হাজির ক্রেতা সুরক্ষা মন্ত্রী

পুরসভার তরফে আরও জানানো হয়েছে, বর্ষা না মেটা পর্যন্ত কেউ ফুচকার ব্যবসা করলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here