vijay mallya

ওয়েবডেস্ক: রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক প্রতারণা কাণ্ডে অভিযুক্ত শিল্পপতি বিজয় মাল্য মঙ্গলবার প্রকাশ্যে নিয়ে এলেন প্রধানমন্ত্রী ও অর্থমন্ত্রীকে লেখা প্রায় দু’বছরেরও পুরনো একটি চিঠি। জনসমক্ষে ওই চিঠি তুলে ধরে ভারত থেকে পলাতক ওই মদ ব্যবসায়ী দাবি করেন,  কেন্দ্রের সঙ্গে সমস্ত সমস্যা মিটিয়ে নেওয়ার উদ্যোগ তিনি আগেই নিয়েছিলেন।

মাল্যর দাবি, তিনি ওই চিঠিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলিকে জানিয়েছিলেন, ব্যাঙ্কের কাছে বকেয়া শোধ করার জন্য ‘সম্ভাব্য সমস্ত রকমের চেষ্টা’ করার কথা।

এত দিন নীরব থাকার পর মাল্য কেন ওই চিঠি নিয়ে মুখ খুললেন? তিনি জানিয়েছেন, দেশে না থাকার দরুন দুর্ভাগ্যবশত আমাকে নিয়ে বিতর্ক হচ্ছে। মানুষের মনে অন্য রকমের ধারণার সৃষ্টি হয়েছে। অথচ আমি আগেই এই বিতর্কে দাঁড়ি টানতে চেয়েছিলাম।

তাঁর কথায়, “১৫ এপ্রিল, ২০১৬-তে আমি প্রধানমন্ত্রী এবং অর্থমন্ত্রীকে ওই চিঠি পাঠিয়েছিলাম। চেয়েছিলাম, ঋণ সংক্রান্ত সমস্ত সমস্যা মিটিয়ে ফেলার উদ্যোগ নিতে। কিন্তু তাঁদের তরফে আমাকে কোনো প্রত্যুত্তর দেওয়া হয়নি। আমি দৃঢ়তার সঙ্গে বলছি, রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের ওই ঋণের ব্যাপারে আমি সমস্যা মিটিয়ে নিতে আগ্রহী।তবে রাজনীতির মতো কোনো বহিরাগত বিষয়কে যদি অন্তর্ভুক্ত করা হয়, আমার কিছুই করার নেই”।

উল্লেখ্য, সূত্র মতে, ২০১৬ সালে মাল্য ইংল্যান্ডে চলে যান। তিনি যে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের ঋণ যে কোনো ভাবে মিটিয়ে দিতে চান, সে কথা আগেও বলেছেন। তবে রাজনৈতিক ঘটনার প্রবেশ ঘটার কারণকেই তিনি দায়ী করেছেন।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here