ওয়েবডেস্ক: সদ্য দলে যোগ দিয়েই পঞ্জাবের গুরদাসপুর থেকে বিজেপির টিকিট পেয়ে গিয়েছেন বলিউড অভিনেতা সানি দেওল। বুধবার ওই কেন্দ্রে সানির টিকিট পাওয়া নিয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করে চরম ক্ষোভ উগরে দিলেন প্রয়াত অভিনেতা-সাংসদ বিনোদ খান্নার স্ত্রী কবিতা।

কবিতা বলেন, “আমি মনে করি আমার সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করা হয়েছে। আমি এটাও বুঝতে পারছি যে, যে সমস্ত মানুষ আমাকে তাঁদের কেন্দ্রে সাংসদ হিসাবে দেখতে চেয়েছিলেন, তাঁদের চাহিদাকেও উপেক্ষা করা হয়েছে”।

একই সঙ্গে তিনি বলেন, “আমি পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য অপেক্ষা করছি। এখনও পর্যন্ত কোনো সিদ্ধান্তে পৌঁছাইনি। তবে বিকল্প সিদ্ধান্ত নেব বলেই আশা রাখি”।

প্রসঙ্গত, ১৯৯৮, ১৯৯৯, ২০০৪ এবং ২০১৪ সালের লোকসভা ভোটে বিজেপির প্রতীকে গুরদাসপুরে জয়ী হয়েছিলেন বিনোদ খান্না। গত ২০১৭ সালে তাঁর মৃত্যু হলে ওই কেন্দ্রে উপনির্বাচন হয়। সে বার স্বারণ সালারিয়াকে প্রার্থী করেছিল বিজেপি। কিন্তু তিনি কংগ্রেসের কাছে পরাজিত হন। এর পর গত বছর দুযেক ধরে জোর জল্পনা ছড়িয়েছিল, এ বারের লোকসভা ভোটে গুরদাসপুর থেকে বিজেপি প্রার্থী করতে পারে ওই কেন্দ্রের চারবারের প্রয়াত সাংসদের স্ত্রীকে।

কিন্তু মঙ্গলবার রাজনীতিতে যোগ দিয়েই গুরদাসপুরে বিজেপির টিকিট পেয়ে যান বলিউডের এক সময়ের ডাকাবুকো অভিনেতা সানি দেওল। গত ২০০৪ সালের লোকসভা ভোটে রাজস্থানের বিকানের থেকে বিজেপির টিকিটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন তাঁর বাবা ধর্মেন্দ্র। জয়ীও হন।

তবে কবিতা অবশ্য দাবি করেছেন, “ঈশ্বরের উপর আমার পূর্ণ বিশ্বাস রয়েছে। আমার জীবন একটা সফর। আমি এখানকার মানুষের জন্য বিগত ২০ বছর ধরে কাজ করে চলেছি। যখন বিনোদজি অসুস্থ ছিলেন, তখন আমিই তাঁর সংসদীয় কেন্দ্রের মানুষের পাশে থেকেছি। যে কারণে তাঁরাই আমাকে নিজেদের সাংসদ হিসাবে দেখতে চেয়েছিলেন”। তবে কবিতার দাবি প্রসঙ্গে দলীয় ভাবে কোনো বক্তব্য এখনও পেশ করেনি বিজেপি।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here