vipassana, ram rahim

সিরসা (হরিয়ানা) হানিপ্রীত আগেই উধাও হয়েছেন। এ বার গা ঢাকা দিলেন বিপসনা। বিপসনা ডেরা ম্যানেজিং কমিটির চেয়ারপার্সন। পুলিশের অনুমান, গ্রেফতারি এড়াতেই বিপসনা উধাও হয়েছেন। ইতিমধ্যে তাঁর সম্প্রদায়ের প্রধান পদে অস্থায়ী ভাবে পুত্র জসমীতকে বসানোর ব্যাপারে ডেরাপ্রধান গুরমীত রাম রহিম সম্মতি দিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

রাম রহিম এবং হানিপ্রীতের পরেই ডেরা সচা সৌদার তিন নম্বর গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিত্ব হলেন বিপসনা। ইতিমধ্যে রাম রহিম দণ্ডিত হওয়ার পরে পরেই তাঁর আর-এক ঘনিষ্ঠ সহযোগী আদিত্য ইনসান গা ঢাকা দেন।

আরও পড়ুন: মায়ের সঙ্গে দেখা করলেন জেলবন্দি রাম রহিম, পুলিশের জালে ডেরার এক সক্রিয় কর্মী

ডেরার সূত্রে জানা গিয়েছে, রাম রহিমের সদর দফতর সিরসায় গত শুক্রবার বিপসনাকে শেষ দেখা গিয়েছিল। ডেরার এক শীর্ষস্থানীয় সূত্র ইন্ডিয়া টুডে-কে জানিয়েছে, বিপসনার রাজস্থানের গঙ্গানগর জেলায় গুরসর মদিয়ায় যাওয়ার কথা। রাম রহিম এখানকারই মানুষ। ডেরাপ্রধানের পুত্র জসমীতের হাতে কিছু গুরুত্বপূর্ণ নথি তুলে দেওয়ার কথা বিপসনার। বিপসনার আশঙ্কা, তিনি যে কোনো মুহূর্তে গ্রেফতার হতে পারেন।

কিন্তু সিরসায় সদর দফতর ছাড়ার পর থেকেই বিপসনার মোবাইল সুইচড্‌ অফ। তাই মনে করা হচ্ছে, সদর দফতর ছেড়ে তিনি গা ঢাকা দিয়েছেন। আদিত্য ও হানিপ্রীতের উধাও হয়ে যাওয়ার ব্যাপারে পুলিশ আটক করতে পারে বিপসনাকে। কারণ পুলিশ মনে করে, আদিত্য ও হানিপ্রীত সম্পর্কে বিপসনার কাছে খবরাখবর আছে। যদি বিপসনাকে গ্রেফতার করা যায় তা হলে পুলিশ তাঁর কাছ থেকে ডেরা প্রধানের আরও অনেক অপকীর্তির কথা জানতে পারবে বলে তথ্যাভিজ্ঞ মহল মনে করে।

এ দিকে গুরমীত রাম রহিমের অনুপস্থিতিতে তাঁর পুত্র জসমীতকে যে ডেরার কেয়ারটেকার প্রধান করা হয়েছে, সেই খবরের সত্যতা ডেরার শীর্ষস্থানীয় সূত্রে স্বীকার করা হয়েছে। ওই সূত্রে বলা হয়েছে, রোহতকের জেলে ছেলে রাম রহিমের সঙ্গে দেখা করে এ ব্যাপারে তাঁর সম্মতি নিয়ে এসেছেন তাঁর মা নসীব কৌর। ওই সূত্রে বলা হয়েছে, ডেরাপ্রধান আরও জানিয়েছেন গুরদাস সিং সালোয়ারা হবেন দ্বিতীয় কেয়ারটেকার।

রাম রহিমের আত্মীয় গুরদাস সিং সালোয়ারা  হলেন হরিয়ানার প্রাক্তন ডেপুটি অ্যাডভোকেট জেনারেল। যে দিন ডেরাপ্রধানের দণ্ড ঘোষিত হয়, সেই ২৫ আগস্ট তাঁর ব্যাগ বওয়ার অপরাধে সালোয়ারাকে ডেপুটি অ্যাডভোকেট জেনারেল পদ থেকে ছাঁটাই করা হয়।

 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here