Ram Temple
অযোধ্যার বিতর্কিত জমিতে ঢাঁই করা পাথর। প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: গত সোমবার সুপ্রিম কোর্টে অযোধ্যা মামলার শুনানি নিয়ে বাড়া ভাতে ছাই পড়েছে বিজেপির। আগামী লোকসভা নির্বাচনের আগে কর্মী-সমর্থকদের মন্দির নির্মাণের চাহিদা পূরণ এখন প্রায় বিশ বাঁও জলে। যে কারণে কেন্দ্রের তরফে অর্ডিন্যান্স নিয়ে এসে মন্দিরনির্মাণের জন্য চাপ আসছে অনুগামী সংগঠনগুলির তরফে। এমন পরিস্থিতিতে বিজেপির অন্যতম শুভাকাঙ্ক্ষী সংগঠন বিশ্ব হিন্দু পরিষদের তরফে ব্যতিক্রমী কর্মসূচি নেওয়া হতে চলেছে বলে সূত্রের খবর।

বিশ্বহিন্দু পরিষদের নেতৃত্ব না কি স্থির করেছেন, রামমন্দির নির্মাণে তৃণমূলের সমর্থন আদায়ে দলের সাংসদদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। আগামী লোকসভা ভোটে ‘হিন্দু ভাবাবেগ’কে তুঙ্গে নিয়ে যেতে এই ইস্যুতেই তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদদের কাছে সমর্থন চাওয়া হবে। যদিও তাঁরাও বিলক্ষণ জানেন, বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে অতীতের মতো এই ইস্যুতে তৃণমূলের সমর্থন আদায় মোটেই সম্ভব নয়। কিন্তু এই বিষয়টিকে প্রচারে নিয়ে এসে ধর্মীয় মেরুকরণের প্রশ্নে দ্বিধাবিভক্ত জনগণের কাছে নির্দিষ্ট বার্তা পৌঁছে দিতে চায় পরিষদ। কী সেই বার্তা?

সমর্থন না পেয়ে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ তুলে ধরবে তৃণমূলের ‘হিন্দু বিরোধিতা’র দিকটি। সে ক্ষেত্রে রামমন্দির নির্মাণে তৃণমূলের সমর্থন না মিললে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দলকে খুব স্পষ্ট ভাবে ‘হিন্দু বিরোধী’ তকমা সাঁটিয়ে দেওয়া যাবে।

পরিষদের এই পরিকল্পনা যে নিছকই কল্পনা নয়, তার প্রমাণ ইতিমধ্যেই মিলতে শুরু করেছে। রাম মন্দির নিয়ে প্রচারাভিযানকে শক্তিশালী করে তুলতে বহুবিধ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। চলতি মাসেই বিভিন্ন রাজ্যের রাজ্যপালদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন পরিষদের নেতারা। একই ভাবে তাঁরা বিভিন্ন বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির সঙ্গেও একই ইস্যুতে সাক্ষাৎ-অভিযানে নামতে চলেছেন। তৃণমূল সাংসদদের কাছে সমর্থন আদায়ের উদ্যোগও সেই পরিকল্পনারই অঙ্গ বিশেষ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here