modi-at-voting queue

অমদাবাদ: দীর্ঘ দিনের লড়াই শেষ হল। ভোটপর্ব মিটে গেল গুজরাতে। শেষ দফার ভোট নিয়ে বিতর্কও হল প্রচুর।

নিজের ভোট নিজে দিয়ে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তাঁর বিরুদ্ধে নির্বাচনী বিধিভঙ্গের অভিযোগ এনেছে কংগ্রেস।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে গুজরাতে শেষ দফা ভোট হয়। দুপুর বারোটা কুড়ি নাগাদ মুম্বই থেকে উড়ে এসে অমদাবাদে সবরমতির রানিপ এলাকায় ১১৫ নম্বর বুথে ভোট দেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এর পরেই সেই বিতর্কিত মুহূর্ত।

ভোট দিয়ে নিজের এসইউভিতে দাঁড়িয়ে জনতার উদ্দেশে নিজের কালি লাগানো আঙুল দেখাতে থাকেন মোদী। এই ঘটনাকেই ‘রাজনৈতিক রোড শো’-এর আখ্যা দিচ্ছে কংগ্রেস। পৃথক সাংবাদিক বৈঠকে মোদীর বিরুদ্ধে নির্বাচনী বিধিভঙ্গের অভিযোগ আনেন কংগ্রেসের মুখপাত্র রনদীপ সুরজেওয়ালা এবং গুজরাতে কংগ্রেসের ভারপ্রাপ্ত নেতা অশোক গেহলত।

গেহলত বলেন, “মোদী যে ভাবে রোড শো করেছেন, সেটা নির্বাচনী বিধিভঙ্গের আওতায় পড়ে।” দু’জনেরই অভিযোগ নির্বাচন কমিশন এখন মোদীর হাতের পুতুল। এর পরে বিকেল নাগাদ নির্বাচন কমিশনের অফিসের সামনের বিক্ষোভ দেখায় কংগ্রেস।

উল্লেখ্য, বুধবারই কংগ্রেসের বিরুদ্ধে নির্বাচনী বিধিভঙ্গের অভিযোগ এনেছিল বিজেপি। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে রাহুল গান্ধীর জবাবদিহি করেছে নির্বাচন কমিশন। তবে মোদীর রোড শোয়ের ব্যাপারে কমিশন কিছু করে কি না সেটাই দেখার।

বৃহস্পতিবার গুজরাতে দ্বিতীয় ও শেষ দফার ভোট চলছে। এর মধ্যে মধ্য গুজরাতে ভোট হচ্ছে ৬১টি আসনে এবং উত্তর গুজরাতে ৩২টি আসনে। কমিশন সূত্রে জানা গিয়েছে দুপুর ১টা পর্যন্ত ভোট পড়েছে ৪০ শতাংশ।

সকাল আটটা নাগাদ গান্ধীনগরে ভোট দেন প্রধানমন্ত্রীর মা হীরাবেন।

নারানপুরা কেন্দ্রে ভোট দিয়ে বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ বলেন, ‘‘গুজরাত মডেল শুধু ভারতে নয় পৃথিবীতে বহু আলোচিত। এই উন্নয়নের বিরুদ্ধে যাঁরা এসে দাঁড়াবেন জনগণ বিপুল সংখ্যায় ভোট দিয়ে তাঁদের ছুড়ে ফেলে দেবেন।’’ শেষ দফায় ভোট দিলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলিও।

আনন্দে ২০১ নং বুথে ভোট দেন গুজরাত প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি ভারত সিং সোলাঙ্কি।

গত ভোটে এই ৯৩টি আসনের মধ্যে বিজেপি জেতে ৫২টিতে, কংগ্রেস ৩৯টিতে।

ছবি: এএনআই টুইটার

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here