ইমফল : এক জন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ওপর চিৎকার চ্যাঁচামেচি করলেন এক জন ডাক্তার। ঘটনা ইমফল বিমানবন্দরের। রাষ্ট্রপতির আসার জন্য এ দিন বিমান ওঠা নামায় কিছুটা বিলম্ব হয়। সেই সময়ই ছিল ওই ডাক্তার নিরালা সিংহের বিমানও। তাঁর বিমানও ২ ঘণ্টা দেরিতে ছাড়ে। ক্রুদ্ধ ডাক্তার কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কে জে আলফোনসকে সামনে পেয়ে তাঁর ওপরই রাগ ঝেড়ে দেন। ডাক্তারের মনে হয়েছিল, দিল্লি থেকে ইমফলে ওই মন্ত্রীর বিমান দেরিতে নামাতেই দেরি হচ্ছে বিমান ছাড়তে।

ডাক্তার নিরালা সিংহ মন্ত্রীকে বলেন, তিনি এক জন ডাক্তার। কোনো রাজনীতিক নন। রাজনীতিকদের জন্য সাধারণ মানুষকে সমস্যায় পড়তে হয়। তাঁর সময়ের দাম আছে। তিনি দিল্লিতে ভাইয়ের শেষকৃত্যে যাচ্ছেন। তাঁর দেরি হওয়া মানে সব কিছু দেরি হয়ে যাওয়া। মৃতদেহ বাড়িতে রাখা আছে। বেশি দেরি হলে তা থেকে গন্ধ বেরিয়ে যাবে। মন্ত্রী অবশ্য বলেন, ওই মহিলার অসুবিধেটা তিনি বুঝতে পারছেন। গোটা ঘটনার জন্য কখনওই মহিলাকে দোষ দেওয়া ঠিক হবে না।

এক ঘণ্টা পরেই অবশ্য মন্ত্রী বিমান বিলম্বের ব্যাপারটা পুরোপুরি অস্বীকার করে যান। তিনি টুইটে লেখেন, তাঁর জন্য কোনো বিমান দেরিতে ছাড়েনি। সংবাদমাধ্যমগুলো ভুয়ো খবর প্রচার করছে। তাঁরা নির্দিষ্ট সময়েই দিল্লি থেকে ইমফলে পৌঁছেছেন।

 

বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ জানায়, রাষ্ট্রপতি আসার জন্য নিরাপত্তার স্বার্থে এ দিন দু’ ঘণ্টারও বেশি সময় বিমান ওঠা নামা বন্ধ রাখতে হয়েছিল। তাতে ৩টি বিমান দেরিতে ছাড়ে। এই সময়ই এক জন ডাক্তার কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সঙ্গে বিবাদে জড়িয়ে পড়েন।

ওই মন্ত্রী বৃহস্পতিবার বলেন, রাষ্ট্রপতির আসার জন্য নিরাপত্তার স্বার্থে বিমান চলাচল বন্ধ ছিল। প্রধানমন্ত্রী আর রাষ্ট্রপতিকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দেওয়া হয়। সেটাই মেনে আসা হচ্ছে দীর্ঘ দিন ধরে। তাই জন্যই এই ব্যবস্থা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here