জৈসলমের: দু’বছর রঙের উৎসবের আনন্দে তাল কেটেছিল করোনায়। এ বার সারা দেশ জুড়েই বিভিন্ন ভাবে পালিত হচ্ছে এই উৎসব। শুক্রবার রাজস্থানের জৈসলমেরে নাচে-গানে রঙের উৎসবে মাতলেন সীমান্ত সুরক্ষা বাহিনীর (BSF) জওয়ানরা। একে অপরের গায়ে রং মাখিয়ে এক অন্য রকম উন্মাদনা ধরা পড়ল ভিডিয়োয়।

হোলির জনপ্রিয় গান ‘রং বরষে’র সুরে ঢোল বাজিয়ে নাচতে নাচতেই ‘জয় ভারত’, ‘বিএসএফ কি জয়’ স্লোগানে মেতে ওঠেন জওয়ানরা।

ঊর্ধ্বতন বিএসএফ আধিকারিকরাও বিশেষ অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে মিষ্টি বিতরণ করেন।

ভারতবর্ষের বেশির ভাগ স্থানেই রঙের উৎসব পালন করা হয় মহা সমারোহে। হেরফের রয়েছে নাম এবং দিনের। বসন্ত ঋতুর সূচনায় এই দোলযাত্রা বা হোলি হল রঙের উৎসব। যা আনন্দের প্রতীক এবং মন্দের বিরুদ্ধে ভালোর জয়কে চিত্রিত করে। পাশাপাশি ফসল কাটার মরশুমের সূচনা করে।

প্রসঙ্গত, পশ্চিমবঙ্গে দোল উৎসব পালিত হয় পূর্ণিমার পুণ্যতিথিতে। কথিত আছে, এই পূর্ণিমা লগ্নেই জন্ম হয় চৈতন্য মহাপ্রভুর। তাঁর জন্মদিন উপলক্ষে দোল পূর্ণিমার আয়োজন একটি অন্যতম কারণ। নবদ্বীপের বৈষ্ণব ধর্মের এই প্রবক্তার রাধা কৃষ্ণের প্রতি প্রেম ধর্মীয় গণ্ডি ছাড়িয়ে পৌঁছে গেছিল আত্মিক পর্যায়ে। শ্রী হরির প্রতি তাঁর প্রেম ছিল জগৎবিখ্যাত।

আরও পড়তে পারেন:

বিশ্বভারতীতে বসন্ত উৎসব পালন করলেন বিক্ষুব্ধ পড়ুয়ারা, উঠল ‘উপাচার্য হঠাও’ স্লোগান

আতংক তৈরি করাই সার! ঘূর্ণিঝড়ের কোনো সম্ভাবনাই নেই, আপাতত গরম বাড়বে দক্ষিণবঙ্গে

আম আদমি পার্টির মনোনয়নে রাজ্যসভায় যেতে পারেন হরভজন সিংহ

খুব সামান্য কমল সংক্রমণ, তবে মৃত্যু বেড়ে ফের দেড়শোয়

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন