মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালীন মোদীর গুজরাতে কাজের অভিজ্ঞতা তুলে ধরলেন অভিজিত

Abhijit Banerjee and Narendra Modi
প্রতিনিধিত্বমূলক ছবি

ওয়েবডেস্ক: অর্থনীতিতে নোবেলজয়ী অভিজিত বন্দ্যোপাধ্যায়ের দৃষ্টিভঙ্গি এবং নীতি সম্পর্কে প্রশ্ন তুলেছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পীযূষ গয়াল। গত শনিবার সেই প্রশ্নের উত্তরেই মতামত পৃথক হওয়া সত্ত্বেও অন্যের সঙ্গে কাজ করার ক্ষেত্রে “পেশাদার” দৃষ্টিভঙ্গি বজায় রাখার গুরুত্ব তুলে ধরলেন তিনি। অভিজিত বলেন, “অর্থনৈতিক চিন্তাভাবনা”য় কোনো রকমের বিভাজন থাকতে পারে না, এই নীতিই তিনি অনুসরণ করেন।

একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে অভিজিত বলেন, “আমি আমার অর্থনৈতিক চিন্তায় পক্ষপাতী নই। আমরা যে কোনো রাজ্য সরকারের সঙ্গে কাজ করি, যার বেশিরভাগই বিজেপি সরকার। আমরা গুজরাত দূষণ নিয়ন্ত্রণ বোর্ডের সঙ্গে কাজ করেছি যখন গুজরাত নরেন্দ্র মোদীর অধীনে ছিল। আমাদের চমৎকার অভিজ্ঞতা হয়েছিল। আমি বলব যে তারা হাতে-কলমে গৃহীত তথ্যের ভিত্তিতে কাজে আগ্রহী ছিল এবং সেই অনুয়ায়ী-ই নীতিগ্রহণ করেছিল, যা অভিজ্ঞতার মাধ্যমে সঞ্চিত”।

অভিজিতের কথায়, “মন্ত্রী (পীযূষ গয়াল) আমার পেশাদারিত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। কংগ্রেসের মতো বিজেপিও যদি দেশের গরিবির চিত্র জানতে আসত, আমি কি সত্যিটা বলতাম না? আমি অবিকল একই কথা বলতাম ওদেরও। পেশাদারিত্বের দিক থেকে আমি সকলের সঙ্গেই সমান পেশাদার। আমার অর্থনৈতিক ভাবনায় কোনও বিভাজন নেই”।

তিনি ওই বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলকে বলেন, “আমাদের বলার মতো বিশেষ কিছু রয়েছে। তবে নীতি মূল্যায়নে আগ্রহী যে কোনো রাজ্যে কাজ করতে আমাদের কোনো সমস্যা হয়নি। আমরা গুরুত্বের সঙ্গে সমস্যাগুলির সমাধানে সমান ভাবে গুরুত্ব দিই”।

ঠাসা কর্মসূচি নিয়ে দেশে ফিরেছেন অভিজিত। তিনি যে আগামী মঙ্গলবারই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর মুখোমুখি হতে চলেছেন, তা একপ্রকার নিশ্চিত। ওই সাক্ষাতে তাঁদের মধ্যে আধঘণ্টা কথা হবে বলে জানিয়েছে সূত্র।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার পুণের একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে রেলমন্ত্রী বলেন, “নোবেল পুরস্কার পাওয়ার জন্য আমি তাঁকে (অভিজিতকে) অভিনন্দন জানাচ্ছি। কিন্তু আপনারা প্রত্যেকেই তাঁর চিন্তাভাবনা সম্পর্কে জানেন। তাঁরা চিন্তাধারা সম্পূর্ণ বামপন্থী”। একই সঙ্গে তিনি বলেন, “অভিজিত ন্যায় প্রকল্পের প্রশংসা করেছিলেন, কিন্তু দেশের মানুষ সেই ভাবনা খারিজ করে দিয়েছে”।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*


This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.