বিমান বসু বৃন্দা কারাত

ওয়েবডেস্ক: হায়দরাবাদে সিপিএমের ২২তম পার্টি কংগ্রেসে বিতর্কে জড়াল দলের পশ্চিমবঙ্গ শাখা। রাজ্য শাখার তরফে জমা দেওয়া রিপোর্টে বেশ কয়েকটি সংশোধনী চেয়ে আবেদন করেন বাংলা নেতৃত্ব। তবে এই ধরনের সংশোধনী দলীয় নীতির মধ্যে পড়লেও একটি নির্দিষ্ট বিষয়কে নিয়ে তৈরি হয়েছে চরম বিতর্ক।

সূত্রের খবর, রাজ্য শাখার যে রিপোর্ট অধিবেশন কক্ষে উপস্থাপন করা হয়েছে সেখানে স্পষ্টতই উল্লেখ করা হয়েছে, কংগ্রেসের সঙ্গে জোট আদতে ভুল সিদ্ধান্ত ছিল। অথচ এ বারের পার্টি কংগ্রেসে আগামী ২০১৯-এর লোকসভা ভোটে জাতীয় কংগ্রেসের সঙ্গে সমঝোতা নিয়ে জোরালো সওয়াল করার পক্ষে রয়েছে রাজ্য সিপিএম। স্বাভাবিক ভাবেই এই ধরনের পরস্পরবিরোধী মন্তব্যকে ঘিরে কেরল-লবি ছেড়ে কথা বলতে চাইছে না দলের বঙ্গ-ব্রিগেডকে।

গত ১৮ এপ্রিল শুরু হওয়া পার্টি কংগ্রেসের অধিবেশন শুরু থেকেই বাম-গণতান্ত্রিক শক্তি গঠন নিয়ে উত্তপ্ত। বর্তমান সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি ওই শক্তিকে আরও জোরালো করতে কংগ্রেসের হাত ধরার পক্ষে থাকলেও প্রকাশ কারাত-সমর্থকরা তার বিরোধিতায় নেমেছিলেন। কিন্তু বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটের গুরুত্ব অনুধাবন করে সাম্প্রদায়িক শক্তিকে রুখতে গত শুক্রবার অনেকটাই নমনীয়তা দেখান কারাত। জবাবি ভাষণে তিনি প্রসঙ্গটিকে এড়িয়ে যাওয়ায় পার্টির দলিল থেকেও তা বাদ পড়ে যায়। প্রকারান্তরে কংগ্রেসের সঙ্গে যে কোনো রকমের সমঝোতার পথটিও খোলা থাকে।

আরও পড়ুন: খারিজ হয়ে গেল প্রকাশ কারাতের লাইন, খোলা রইল কংগ্রেসের সঙ্গে সমঝোতার দরজা

কিন্তু রাজ্য সিপিএমের রিপোর্ট নিয়ে ফের এক বার সেই পুরনো বিতর্কের অবতারণা ঘটে গেল। এ ব্যাপারে দলের কেরল-লবি কী করে, সে দিকেই তাকিয়ে বিমান বসুরা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here