গুয়াহাটি: নাগরিকপঞ্জিতে নাম না থাকলে, একজন মানুষের জীবনে কী ভাবে অন্ধকার নেমে আসতে পারে, অসমের বাক্সা জেলার বছর পঞ্চাশের বাসিন্দা জাবেদা বেগমই তাঁর জ্বলজ্যান্ত উদাহরণ।

জীবনযুদ্ধে বহু দিন ধরেই যুঝছেন জাবেদা, দীর্ঘদিন ধরেই তাঁর স্বামী রেজ্জাক আলি অসুস্থ। ঘর থেকে বেরোতে পারেন না। নিজের কাঁধেই গোটা সংসারের দায়িত্ব তুলে নিয়েছেন তিনি।

উপার্জনের জন্য রোজ বেরোতে হয় এই মহিলাকে। তবুও সব প্রতিকূলতার বিরুদ্ধে লড়ে যাচ্ছিলেন তিনি। কিন্তু মরার উপর খাঁড়ার ঘা পড়ল তখনই যখন তিনি জানতে পারলেন জাতীয় নাগরিকপঞ্জির তালিকায় তাঁর নাম নেই। অর্থাৎ তিনি বিদেশি ঘোষিত হয়েছেন।

তার পরেও দমে যাননি তিনি। নিজের এবং নিজের পরিবারের নাগরিকত্ব প্রমাণ করার প্রয়োজনে জাবেদা বেগম দ্বারস্থ হয়েছিলেন গুয়াহাটি হাইকোর্টের। সেখানেও হেরে যাওয়ার পর জাদেজার এখন শেষ সম্বল সুপ্রিম কোর্ট।

স্বামী ও মেয়ে নিয়ে ভরা সংসার ছিল জাবেদার। টাকা-পয়সার অভাবে সুখ না থাকলেও সংসারে স্বস্তি ছিল। কিন্তু এক মেয়ে দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছে এবং অপরজন নিখোঁজ। সংসারে এখন সন্তান বলতে একটিই, বছর পাঁচেকের আসমিনা।

আসমিনার কথা ভেবেই আইনি লড়াই লড়ছেন জাবেদা। নাগরিকত্ব প্রমাণ করতে না পারলে কী হবে আসমিনার ভবিষ্যৎ, তা নিয়েই ভাবনার পাহাড় চেপে বসেছে তাঁর মাথায়।

২০১৮ সালে অসম ফরেনার্স ট্রাইব্যুনাল ওই মহিলাকে বিদেশি ঘোষণা করেছিল। পরে নাগরিকপঞ্জি তালিকাতেও স্থান হয়নি তাঁদের। টানা এক বছর নিয়মিত আদালতে চক্কর কেটেছেন তিনি। কিন্তু তার পরেও নিজের পরিবারের নাগরিকত্ব প্রমাণ করতে পারেননি তিনি।

আরও পড়ুন ‘বেআইনি অনুপ্রবেশকারী’ সন্দেহে ১২৭ জনকে নোটিশ আধার কর্তৃপক্ষের, তীব্র বিতর্ক

হাইকোর্ট জানিয়েছে, জাবেদার জমির কর দেওয়ার কাগজ, ব্যাংকের নথিপত্র এবং প্যান কার্ড এই সব তাঁর নাগরিকত্বের চূড়ান্ত প্রমাণ নয়।

সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার আগে একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে জাবেদা বলেন, “আমার যা ছিল তা আমি প্রায় সব খরচ করে মামলা চালিয়েছি। এখন আমার কাছে আইনি লড়াইয়ের কার্যত আর কোনো টাকা নেই।” মামলা লড়ার খরচ জোগাড়ের জন্যে নিজের তিন বিঘা জমিও বিক্রি করে দিয়েছেন জাবেদা।

অসমে জাবেদা বেগমের মতোই আরও অনেক মানুষই রাতারাতি বিদেশি বলে ঘোষিত হয়েছেন। তাঁরা এখন বুঝতে পারছেন না নিজেদের দারিদ্র্যের সঙ্গে যুঝবেন না কি নাগরিকত্ব প্রমাণ করার জন্য মরিয়া হয়ে লড়াই করবেন।

তাঁদের অবস্থা এখন কী রকম, সেটা হয়তো জাদেজার সংগ্রাম থেকেই বোঝা যাচ্ছে।

খবর সৌজন্য: এনডিটিভি

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন