ওয়েবডেস্ক: বাঙালিদের মধ্যে বাংলা ভাষার চল লোপ পাচ্ছে ক্রমশ, এমন অনেকের মুখেই শোনা যায়। অনেকাংশে কথাটা ভুল কিছু নয়ও। সোশ্যাল মিডিয়া, হোয়াটসআপে বাংলা ভাষাকে নানা ভাবেই বিকৃত করা হচ্ছে। এর থেকেই ধারণা, আজ থেকে ৫০ বছর পর হয়তো বাংলা ভাষার কোনো চল ভারতে আর থাকবে না।

তবুও একটা তথ্য দিলে বাঙালি হিসেবে আপনার গর্ব হবে। তথ্যটি হল মাতৃভাষা হিসেবে ভারতে বাংলা ভাষার স্থান দু’নম্বরে। ২০১১-এর জনগণনার ভিত্তিতে এই ছবিটা ফুটে উঠেছে। দিন কয়েক আগেই প্রকাশিত হয়েছে এই তথ্যটি।

সমীক্ষার ফলে দেখা যাচ্ছে, মাতৃভাষা হিসেবে হিন্দির স্থান সব থেকে ওপরে। ৪৩.৬৩ শতাংশ মানুষ হিন্দিকে তাদের মাতৃভাষা হিসেবে বেছেছেন। এর পরেই বাংলা। ৮.৩ শতাংশ মানুষ বাংলাকে মাতৃভাষা হিসেবে বেছেছেন। ২০০১-এর জনগণনায় এই সংখ্যাটি ছিল ৮.১১ শতাংশ। সমীক্ষায় আরও দেখা গিয়েছে দক্ষিণ ভারতে বাংলা ভাষাভাষী মানুষের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে।

তৃতীয় এবং চতুর্থ স্থানে রয়েছে যথাক্রমে মরাঠি এবং তেলুগু।

তবে এই সমীক্ষা থেকে একটা উল্লেখযোগ্য তথ্য বেরিয়ে এসেছে। তা হল, দেশের প্রায় ৫৭ শতাংশ মানুষের মাতৃভাষা কিন্তু হিন্দি নয়। এই আবহে কেন্দ্রের হিন্দি ভাষার ওপরে বেশি করে জোর দেওয়া কতটা যুক্তিসঙ্গত সেই প্রশ্ন থেকেইও যায়।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here