১৫ জানুয়ারি ভারতীয় সেনার কাছে কেন বিশেষ? জেনে নিন সেনা দিবসের কিছু তথ্য

0

ওয়েবডেস্ক: প্রতি বছরের মতো এ বারও সাড়ম্বরে পালিত হচ্ছে সেনাদিবস। আজকের দিনেই প্রথম বার সেনাবাহিনীর দায়িত্ব নেন একজন ভারতীয় জেনারেল।

১৯৪৯ সালে জেনারেল কেএম কারিয়াপ্পা ভারতীয় সেনাবাহিনীর কম্যান্ডার-ইন-চিফ পদের দায়িত্ব নেন। এ দিন দিল্লি ক্যানটনমেন্টের প্যারাড গ্রাউন্ডে সেনাবাহিনীর প্যারাড অনুষ্ঠিত হয়।

স্বাধীনতার পর দেশের প্রথম দুই সেনা প্রধান ছিলেন ব্রিটিশ। কারিয়াপ্পা ভারতের শেষ ব্রিটিশ কম্যান্ডার জেনারেল স্যার ফ্রান্সিস বাউচারকে সরিয়ে তাঁর স্থলাভিষিক্ত হন। ৪৯ বছর বয়সে ভারতীয় সেনার দায়িত্ব নেন কারিয়াপ্পা। চার বছর এই পদে থেকে ১৯৫৩ সালের ১৬ জানুয়ারি অবসর গ্রহণ করেন তিনি।

সেনা দিবস নিয়ে কিছু তথ্য জেনে নিনঃ-

আরও পড়ুন দিলীপ ঘোষকে ভর্ৎসনার পর এ বার দীপিকা পাড়ুকোনের পাশে দাঁড়ালেন বাবুল সুপ্রিয়

  • সেনাদিবসে সেনাবাহিনীর স্যালুট গ্রহণ করেন সেনাপ্রধান। বায়ুসেনা ও নৌবাহিনীর প্রধানরাও উপস্থিত থাকেন এই প্যারাডে। এ দিন এই তিন জনের পাশাপাশি উপস্থিত ছিলেন ‘চিফ অব ডিফেন্স স্টাফ’ বিপিন রাওয়াতও।
  • এ দিন সেনাবাহিনীর সদস্যদের হাতে সাহসিকতার জন্য পুরস্কার তুলে দেন সেনাপ্রধান। এই বছর ১৫ জন সেনা জওয়ানকে এই পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়েছে।
  • পরমবীর চক্র ও অশোক চক্রের প্রাপকরা প্রতি বছর সেনা দিবসের প্যারাডে অংশ নেন।
  • সেনাদিবসের ইতিহাসে এ বারই প্রথম যে এই বিশেষ দিবসের প্যারাডে নেতৃত্ব দিলেন একজন মহিলা অফিসার। ক্যাপ্টেন তানিয়া শেরগিল দু’ বছর আগে সেনাবাহিনীতে যোগ দিয়েছেন।
  • সেনাদিবসের প্যারেডের পর রাজাজি মার্গে সেনাপ্রধানের সরকারি বাসভবনে একটি ঐতিহ্যবাহী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রিসভার সদস্যরা এবং সেনা অফিসাররা।
dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন