কলকাতা: হাঁফ ছেড়ে বাঁচলেন হোয়াটসঅ্যাপ (Whatsapp) ব্যবহারকারীরা। দীর্ঘতম বিভ্রাটের পর ফিরে এলেও রয়ে গিয়েছে বেশ কিছু সমস্যা। একই সঙ্গে গ্রাহকদের তথ্যও হাতিয়ে নেওয়া আশঙ্কা প্রকাশ করছেন বিশেষজ্ঞরা।

হোয়াটসঅ্যাপ বিপর্যয়

মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে আচমকা গোলমাল শুরু হয় হোয়াটসঅ্যাপ পরিষেবায়। প্রায় দুই ঘণ্টা বিভ্রাটের পরে দুপুর ২.১৫টা নাগাদ ফিরে আসে মেসেজিং প্ল্যাটফর্ম হোয়াটসঅ্যাপ। এটাই এখনও পর্যন্ত হোয়াটসঅ্যাপের দীর্ঘতম বিভ্রাট

বিবিসি জানিয়েছে, ভারতে ছাড়াও, ব্যবহারকারীর ভিত্তিতে হোয়াটসঅ্যাপের বৃহত্তম বাজার, ইতালি এবং তুরস্কের সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারীরাও মেসেজ পাঠাতে না পারার বিষয়ে পোস্ট করেছেন। ব্রিটেনেও সমস্যার মুখে পড়েন ব্যবহারকারীরা। ওয়েবসাইটের হিট-ম্যাপের উপর ভিত্তি করে জানা গিয়েছে, এ দেশের প্রভাবিত অঞ্চলগুলির মধ্যে ছিল মুম্বই, দিল্লি, কলকাতা এবং লখনউয়ের মতো বড়ো শহরগুলি।

এই বিভ্রাটে অ্যাপের ব্যক্তিগত চ্যাট এবং গ্রুপ চ্যাট উভয় পরিষেবাকেই প্রভাবিত করেছিল। হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপগুলিতেও কোনো বার্তা পাঠানো সম্ভব হচ্ছিল না। পরিস্থিতি নজরে আসার পর মেটা (হোয়াটসঅ্যাপ ছাড়াও ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রামের মালিক)-র এক মুখপাত্র জানান, “মেসেজ পাঠাতে অনেকেরই সমস্যা হচ্ছে। আমরা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সবার জন্য হোয়াটসঅ্যাপ ফিরিয়ে আনার কাজ করছি”।

হাতানো হতে পারে তথ্য

এই ঘটনার পিছনে শুধুমাত্র যান্ত্রিক ত্রুটি রয়েছে না কি অন্য কোনো বড়ো প্রযুক্তিগত সমস্যা রয়েছে তা, এখনও জানা যায়নি। অন্য দিকে, সাইবার বিশেষজ্ঞরা শোনাচ্ছেন আশঙ্কার কথা। তাঁরা বলছেন, এ ধরনের প্ল্যাটফর্মে হামলার আশঙ্কা থাকে। বড়োসড়ো হামলা চললে যেমন পরিষেবা ব্যাহত হয়, তেমনই পরিষেবা ব্যাহত হওয়ার সময়কেও ব্যবহার করতে পারে হামলাকারীরা।

প্রায় দু’ঘণ্টা ধরে বন্ধ ছিল হোয়াটসঅ্যাপ পরিষেবা। বিশ্ব জুড়ে এত বড় ‘বিপর্যয়’ নিয়ে ভিন্ন আশঙ্কার কথা তুলে ধরছেন সাইবার বিশেষজ্ঞরা। তাঁদের মতে, হোয়াটসঅ্যাপের মতো সংস্থায় এত বড় গন্ডগোল আসলে কোনো সাইবার হানা হতে পারে। এর মাধ্যমে গ্রাহকদের তথ্যও হাতিয়ে নেওয়া হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তাঁরা। পাশাপাশি তাঁরা জানাচ্ছেন, এখানে এনক্রিপশন খুব উচ্চ মানের। কিন্তু সার্ভারে হামলা হলে বিপুল তথ্য অন্যের হাতে চলে যেতে পারে

আরও পড়ুন: বাংলাদেশে অনলাইন গেমের নামে জুয়ায় ১৭৪ কোটি টাকা লোপাট, জড়িত ভারতীয় সংস্থা

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন