সীতারাম ইয়েচুরিকে সঙ্গ দিতে ৩৫ হাজার টাকার বই কিনে রাজ্যসভায় ঢুকেছিলেন অরুণ জেটলি!

0
arun jaitley and sitaram yechury
ছবি: প্রোকেলারা.কম-এর সৌজন্যে

ওয়েবডেস্ক: কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি সৌমিত্র সেনের বিরুদ্ধে ‘ইমপিচমেন্ট’ বা অপসারণের প্রস্তাব ওঠে রাজ্যসভায়। সেটাই ছিল এ দেশের কোনো বিচারপতির বিরুদ্ধে ওঠা প্রথম ইমপিচমেন্ট। ২০১১ সালের ১৮ আগস্ট রাজ্যসভার কার্যকম শুরু হওয়ার মাত্র কয়েক মিনিট আগে গাদাগুচ্ছের আইনের বই নিয়ে সংসদের উচ্চকক্ষে প্রবেশ করতে দেখা যায় অরুণ জেটলিকে।

জেটলির সঙ্গে থাকা বইগুলি ছিল সদ্য কেনা। যা নজর এড়ায়নি উপস্থিত সাংবাদিকদের। রাজ্যসভা থেকে বাইরে আসতেই সাংবাদিকরা তাঁকে বিশাল সংখ্যক নতুন বইগুলি সম্বন্ধে জানতে চান। উত্তরে জেটলি বলেন, তিনি আদালতে চলা নাটকের বিষয়ে আইনি বিধান এবং পারিপার্শ্বিক যুক্তি সম্বন্ধীয় বই কিনেছেন। যার দাম ৩৫ হাজার টাকার বেশি। রাজ্যসভার বিতর্কে অংশ নিয়ে যাতে আইনের সূক্ষ্ম দিকগুলিও কক্ষের নজরে স্পষ্ট ভাবে তুলে নিয়ে আসা যায়, সে কারণেই বইগুলি তিনি কিনে নিয়ে এসেছেন।

শেষমেশ রাজ্যসভায় ওই প্রস্তাব পাশ হয়ে যায়। বিচারপতি হিসাবে সৌমিত্র সেনের ভূমিকার বদলে তাঁর বিরুদ্ধে প্রধান অভিযোগ ছিল, তিনি আইনজীবী হিসেবে আর্থিক বেনিয়ম করেছিলেন। কিন্তু রাজ্যসভায়  তাঁর অপসারণের প্রস্তাবটি পাশ হয়ে যাওয়ার পর সেটি লোকসভা উত্থাপনের আগেই সৌমিত্র সেন ইস্তফা দেন।

প্রসঙ্গত, ওই প্রস্তাব পাশ করানোর বিষয়ে সিপিএম সাংসদ সীতারাম ইয়েচুরি প্রধান ভূমিকা নিয়েছিলেন। রাজ্যসভার বিরোধী দলনেতা হিসেবে তখন তাঁকে সঙ্গ দিয়েছিলেন জেটলি

এই ঘটনাটি শুধুমাত্র একজন দুঁদে আইনজীবী অরুণ জেটলির আন্তরিকতাকেই নয়, তিনি সংসদীয় কার্যনির্বাহের বিষয়টি কতটা গুরুত্ব সহকারে পালন করেছিলেন, সেটাও তুলে ধরে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here