marriage communal harmony

নয়াদিল্লি: নিজেদের মেয়ে একজন ভিন্ন জাতের ছেলেকে বিয়ে করার পরিকল্পনা করছে, এই খবর জানতে পেরেই কিছু দিন আগে দিল্লিতে ওই ছেলেকে খুন করেছে মেয়ের বাবা এবং কাকা। এই ‘অনার কিলিং’ প্রসঙ্গে কড়া মন্তব্য করল সুপ্রিম কোর্ট। প্রধান বিচারপতি সাফ জানিয়ে দিলেন, দু’জন প্রাপ্তবয়স্ক বিয়ে করলে অন্য কারও অধিকার নেই সেই বিয়েতে নাক গলানোর।

খাপ পঞ্চায়েত এবং অনার কিলিং বন্ধ করার জন্য অলাভজনক সংগঠন শক্তি বাহিনীর করা একটি আবেদনের ভিত্তিতে প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র সোমবার জানিয়েছেন, “বাবা-মা হোক বা সমাজ বা যে কেউ, কারও কোনো অধিকার নেই দু’জন প্রাপ্তবয়স্কের বিয়েতে নাক গলানোর।”

সোমবারের শুনানিতে খাপ পঞ্চায়েতগুলোর তরফ থেকে উপস্থিত এক আইনজীবী বলেন, তারা এই রকম খুনোখুনির বিরোধী। এর জবাবে বিচারপতি মিশ্র বলেন, “আমরা খাপ পঞ্চায়েত নিয়ে ভাবিত নই, আমরা ভাবিত দু’জনের বিয়ে নিয়ে। দু’জনের বিয়ে ভালো হোক বা খারাপ, আমরা মন্তব্য করার কেউ নই।”

উল্লেখ্য, এই দিনের শুনানিতে আদালতে দিল্লির ওই খুনের প্রসঙ্গও ওঠে। কিন্তু সেই প্রসঙ্গ তৎক্ষণাৎ খারিজ করে দেন প্রধান বিচারপতি।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন