২২ বছর পর দেবগৌড়ার বিরুদ্ধে প্রতিশোধ নিলেন বাজুভাই

0
837

ওয়েবডেস্ক: ১৯৯৬ সাল। কেন্দ্রে তখন কংগ্র্সের সমর্থনে ক্ষমতাসীন ইউনাইটেড ডেমোক্র্যাটিক ফ্রন্ট সরকার। প্রধানমন্ত্রী এইচডি দেবগৌড়া। গুজরাতে তখন বিজেপি সরকার। মুখ্যমন্ত্রী সুরেশ মেহতা। অর্থমন্ত্রী বাজুভাই বালা (বর্তমানে কর্নাটকের রাজ্যপাল)। গুজরাত রাজ্য বিজেপির সভাপতিও তখন বাজুভাই।

সে সময় ১৮২ আসনের গুজরাত বিধানসভার ১২১টি আসনই বিজেপির দখলে। সে সময় গুজরাত বিজেপির অন্যতম নেতা শঙ্কর সিং বাঘেলা দাবি করেন, তাঁর সঙ্গে বিজেপির ৪০ জন বিধায়ক আছেন। বাইরে থেকে তাঁর উচ্চাকাঙ্ক্ষায় উসকানি দেয় কংগ্রেস। গুজরাতের রাজ্যপাল সুরেশ মেহতাকে বিধানসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণের নির্দেশ দেয়। কিন্তু যে দিন ভোটাভুটি হওয়ার কথা, সে দিন দুই পক্ষের বিবাদে বিধানসভা বানচাল হয়ে যায়।

তার পরই প্রধানমন্ত্রী এইচডি দেবগৌড়ার নির্দেশে গুজরাতে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করেন রাষ্ট্রপতি শঙ্করদয়াল শর্মা। গুজরাতের বিজেপি বিধায়করা মিছিল করে এসে রাষ্ট্রপতি ভবনে রাতে ধরনায় বসেন, কিন্তু কোনো লাভ হয়নি। প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ী বলেছিলেন, দেবগৌড়া তাঁকে আশ্বাস দিয়েছিলেন- কেন্দ্র গুজরাতে হস্তক্ষেপ করবে না। কিন্তু তা হয়নি। কারণ কংগ্রেসের চাপ ছিল।

আরও পড়ুন: সুপ্রিম কোর্টের রায় থাকা সত্ত্বেও বিজেপিকে বিধায়ক কেনার সময় দিচ্ছেন কর্নাটকের রাজ্যপাল, কেন?

তার পর শঙ্কর সিং বাঘেলা রাষ্ট্রীয় জনতা পার্টি তৈরি করে অক্টোবরে গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী হন। পরের বছর অক্টোবরে তিনি মুখ্যামন্ত্রিত্ব ছাড়লেও সে রাজ্যে নির্বাচন হয় ১৯৯৮ সালের মার্চে। নতুন করে বিজেপি সরকার আসে। মুখ্যমন্ত্রী হন কেশুভাই পটেল। ফের অর্থমন্ত্রী হন বাজুভাই বালা। ১৯৯০ সাল থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত টানা মন্ত্রিত্বে ওই একবারই ছেদ পড়েছিল বাজুভাইয়ের।

সে দিনের কথা তাঁর পক্ষে ভোলা সম্ভব নয়। তার পর অনেক সময় গড়িয়ে গেছে। কিন্তু ভারতীয় রাজনীতির রোমাঞ্চকর নাটকীয়তা আরও একবার মুখোমুখি দাঁড় করিয়েছে দুই প্রবীণকে। দেবগৌড়ার পুত্র কুমারস্বামীর মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্নে তাই বাধা হয়ে দাঁড়ালেন বাজুভাই। আইন ও প্রথার তোয়াক্কা না করে ব্যক্তিগত প্রতিশোধ স্পৃহাই কি তাঁকে চালিত করল ২২ বছর পর?

সংসদীয় রাজনীতি তো জীবনের মতোই। ম্যাজিকে ভরা।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here