Bharati Ghosh

ওয়েবডেস্ক: সিআইডির হাতের নাগালে এসেও ফসকে গেলেন পশ্চিম মেদিনীপুরের প্রাক্তন পুলিশ সুপার ভারতী ঘোষের দেহরক্ষী সুজিত মণ্ডল। তবে এই ঘটনা থেকে একটা বিষয় পরিষ্কার হয়ে গেল, ইদানীং ভারতী ঘোষ মুম্বইয়েই আছেন।

গত শুক্রবার মুম্বইয়ের লোকমান্য তিলক থানায় অভিযোগ দায়ের করতে যান সুজিত। তাঁর নামেও লুক আউট নোটিস জারি করেছে সিআইডি। জানা গিয়েছে, ওই থানায় গিয়ে কয়েক জন তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়েরের আবেদন জানান সুজিত। সে সময় মুম্বই পুলিশের তরফে যোগাযোগ করা হয় পশ্চিমবঙ্গের সিআইডির সঙ্গে। সিআইডি রাতেই মুম্বই রওনা দেয়। কিন্তু সেখানে গিয়ে জানতে পারে সুজিত পুলিশের চোখে ফাঁকি দিয়ে পালিয়ে গিয়েছেন।

যদিও এই ঘটনার মধ্যেও যথেষ্ট ধোঁয়াশা রয়েছে বলে অনুমান করছে ওয়াকিবহাল মহল। কারণ একটি সূত্র বলছে, সিআইডির সঙ্গে যোগাযোগ করার পর মহামান্য তিলক থানার পুলিশ সুজিতকে গ্রেফতার করে। সেই খবর পাওয়ামাত্রই দুই ডিএসপির সিআইডি দল মুম্বই পাড়ি দেয়। কিন্তু তারই মধ্যে কী ভাবে সুজিত পালিয়ে গেলেন, সে ব্যাপারে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে।

তবে এই ঘটনা থেকে আপাত ভাবে সিআইডি নিশ্চিত হল, ভারতী ঘোষের ছায়াসঙ্গী হিসাবে পরিচিত সুজিত যখন মুম্বইয়ে, তখন প্রাক্তন ওই পুলিশ সুপারও সেখানেই থাকতে পারেন। সিআইডি সেই অনুমানকে সামনে রেখেই জোর তল্লাশি চালাচ্ছে।

উল্লেখ্য, গত ২৯ জুন পশ্চিম মেদিনীপুরের ঘাটাল এসিজেএম আদালতে সিআইডি যে চার্জশিট জমা দেয়, তাতে নাম রয়েছে ভারতী ও তাঁর স্বামী এম ভি রাজুর।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন