modi

ওয়েবডেস্ক: “প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী পায়ের আঙুলের ডগায় ভর দিয়ে দাঁড়িয়ে যোগ অনুশীলনের ভিডিও তৈরি করছেন। দেশ তখন অন্য দিকে আফগানিস্থান, সিরিয়া বা সৌদি আরবকে পিছনে ফেলে এগিয়ে চলেছে নারী নির্যাতনে”। নারী নিরাপত্তা বিবিধ দিক নিয়ে প্রকাশ হওয়া সাম্প্রতিক একটি সমীক্ষা রিপোর্টকে হাতিয়ার করে এই ভাষাতেই নরেন্দ্র মোদীকে বিঁধলেন জাতীয় কংগ্রেসের সর্বভারতীয় সভাপতি রাহুল গান্ধী।

মোদীর যোগ ভিডিও নিয়ে রাহুল তীব্র কটাক্ষ করেছেন টুইটারে। মাইক্রোব্লগিং সাইটে রাহুল তুলে ধরেছেন সিএনএন-এর বহু সমালোচিত ওই সমীক্ষা রিপোর্টটিকে। ওই রিপোর্টে প্রকাশ পেয়েছে, ধর্ষণ-সহ নারী নির্যাতনের বিষয়গুলিতে ভারত বিশ্বের অন্যান্য দেশগুলির তুলনায় কতটা এগিয়ে।

থমসন রয়টার্স ফাউন্ডেশনের তৈরি করা ওই সমীক্ষা রিপোর্টে পরিসংখ্যান-সহ উল্লেখ করা হয়েছে, “ভারতে নারী নিরপত্তার নেতিবাচক দিকটি। ধর্ষণ এবং নারীপাচারের দিক থেকে ভারতকে বিপজ্জনক আখ্যাও দেওয়া হয়েছে ওই রিপোর্টে। পাশাপাশি বলা হয়েছে, বলপূর্বক বিবাহ এবং যৌনবৃত্তিতে এই দেশ সব থেকে এগিয়ে”।

ওই সমীক্ষা জানাচ্ছে, “সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য যা নারীকে প্রভাবিত করে” এমন দিক থেকে ভারতবর্ষ পৃথিবীর মধ্যে বিপজ্জনক দেশ। এই দিকটিতে বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে অ্যাসিড আক্রমণ, বাল্যবিবাহ এবং মহিলাদের অঙ্গস্পর্শের মতো গুরুতর অপরাধ।

আরও পড়ুন: নারী নিরাপত্তায় ভারতের বেহাল দশার কথা জানাল সমীক্ষা

মোদীর ‘বেটি বাঁচাও’ প্রকল্পের কথা তুলে ধরে রাহুল বলেন, “ভারতের শিশু মহিলারা এখন প্রকাশ্যে আসতে ভয় পায়। ধর্ষণ আর খুনের ঘটনা প্রত্যেককে তাড়া করে বেড়ায়। আমরা সরকারের কাছে দাবি করছি, অবিলম্বে পরিস্থিতি বদলের পরিকল্পনা নিন। যাতে এ দেশের মেয়েরা নির্ভয়ে রাস্তায় বের হতে পারে”।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here