খবরঅনলাইন ডেস্ক: ইউরোপ, আমেরিকায় যখন করোনা সংক্রমণ অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে এসে গিয়েছে, তখন ভারত-সহ বেশ কিছু দেশে সংক্রমণ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)। এই পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসার জন্য সার্বিক টিকাকরণই যে একমাত্র পথ সেটাও মনে করিয়ে দিয়েছে সংস্থাটি।

শুক্রবার গোটা বিশ্বের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করতে বিশেষ সাংবাদিক বৈঠক করেন হু প্রধান টেড্রস অ্যাডানম গেব্রিয়েসাস (Tedros Adhanom Ghebreyesus)। সেখানে ভারতের পরিস্থিতি নিয়ে বিশেষ উদ্বেগ প্রকাশ করেন তিনি। টেড্রস বলেন, ‘‘ভারতের পরিস্থিতি অত্যন্ত উদ্বেগজনক। বিভিন্ন রাজ্যে যে ভাবে সংক্রমণের সংখ্যা এতটাই বেশি যে সেটা খুবই দুশ্চিন্তার বিষয়।’’

Loading videos...

তবে শুধু ভারতই নয়, আরও বেশ কিছু দেশের করোনা পরিস্থিতি নিয়েও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন হু প্রধান। তাঁর কথায়, “নেপাল, শ্রীলঙ্কা, ভিয়েতনাম, কাম্বোডিয়া, তাইল্যান্ড এবং মিশরেও সংক্রমণ এবং হাসপাতালে ভরতি হওয়ার রোগীর সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে।”

মিশরের পাশাপাশি আফ্রিকা মহাদেশের বেশ কিছু দেশেও সংক্রমণ বাড়ছে। সেই সব দেশেও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা সাহায্য পাঠাচ্ছে বলে জানিয়েছেন টেড্রস।

তবে স্বস্তির বিষয় হল গত কয়েকদিন ধরেই ভারতে সংক্রমণের গ্রাফ কিছুটা হলেও নিম্নমুখী হচ্ছে। উত্তর এবং পশ্চিম ভারতে সংক্রমণের অনেকটাই পতন দেখা গিয়েছে। ভারত সামগ্রিক ভাবে দ্বিতীয় ঢেউয়ের শিখর পেরিয়ে গিয়েছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

তবে করোনা থেকে পুরোপুরি মুক্তি পেতে হলে টিকাকরণের গতি আরও বাড়াতে হবে বলে জানিয়ে দিয়েছেন হু প্রধান। ভারতে এই টিকাকরণের প্রক্রিয়াটিই অত্যন্ত স্লথ হয়ে রয়েছে।

আরও পড়তে পারেন Corona Update: গতি পাচ্ছে সংক্রমণের নিম্নমুখী যাত্রা, একদিনে সক্রিয় রোগীর সংখ্যায় ৩১ হাজার পতন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.