Connect with us

দেশ

লাল পতাকা উড়িয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লক্ষ্যে এগোচ্ছেন রাজকুমার

Rajkumar yadav

ওয়েবডেস্ক: বিহারের সিপিআই (এমএল) নেতা রাজকুমার যাদবকে সামনে রেখে কোডারমা কেন্দ্রটি এখন রাজনীতির চর্চায়। যদিও আর এক তরুণ বামপন্থী নেতা তথা বিহারেরই বেগুসরাইয়ের প্রার্থী কানহাইয়া কুমারের মতো সংবাদ মাধ্যমের ততটা দাক্ষিণ্য জোটেনি রাজুর বরাতে। কিন্তু কোডারমার এ বারের লোকসভা রণ-সমীকরণই তাঁকে জোগাচ্ছে বাড়তি অক্সিজেন। কে এই রাজকুমার?

গত ১১ এপ্রিল কোডারমা লোকসভা থেকে মনোনয়ন জমা করলেন রাজকুমার। তাঁর সঙ্গে ছিলেন নিরশার বিধায়ক অরূপ চট্টোপাধ্যায়। রাজকুমার সম্পর্কে তিনি জানান, “ঝাড়খণ্ড বিধানসভায় রাজকুমারই একমাত্র বিধায়ক, যিনি বিধানসভায় যে কোনো গণদাবির কথাই সমান গুরুত্ব গিয়ে উত্থাপন করেন। সেটা হতে পারে অঙ্গনওয়াড়ি, পার্শ্বশিক্ষক বা সাধারণ মানুষের অতিআবশ্যক যে কোনো রাজ্য সরকারি কর্মসূচি। রাঁচি থেকেই হোক বা রাজ্যের অন্য কোনো প্রান্ত থেকে, যে কোনো বিক্ষোভ-সমাবেশে তাঁকে দেখা যাবেই। এবং সেটা একেবারে সামনের সারিতে থেকে নেতৃত্ব দেওয়াতেই। ফলে কোডারমা থেকে রাজকুমার সংসদে গেলে শুধুমাত্র তাঁর নির্বাচনী ক্ষেত্রের মানুষই যে উপকৃত হবেন, সেটা নয়। গোটা দেশই এক জন যথার্থ জনপ্রতিনিধিকে পাবে”।

রাজকুমার যাদব, কোডারমায় সিপিআই (এমএল) প্রার্থী। ম্যাট্রিক পাশ। ২০০৪ সালে জেলের ভিতর থেকে প্রথম লোকসভা নির্বাচনে লড়ে ভোট পেয়েছিলেন ১,৩৬,০০০। ২০০৯-এর লোকসভা নির্বাচনে ১,৫০,০০০ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় হন। ২০১৪ সালে মোদী-ঝড় অগ্রাহ্য করে ২,৬৭,০০০ ভোট পেয়ে ফের দ্বিতীয় স্থান দখল করেন। বিভিন্ন গণআন্দোলনের সঙ্গে যুক্ত রাজকুমার ২০১৪ সালের ঝাড়খণ্ড বিধানসভা নির্বাচনে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বাবুলাল মারাণ্ডিকে পরাজিত করে বর্তমানে বিধায়ক। এমনটাও শোনা গিয়েছে, তাঁর কাছে হেরে যাওয়ার ভয়ে বিজেপি তাদের কোডারমার বর্তমান সাংসদকে টিকিটই দেয়নি।

বিজেপিকে ঠেকাতে কোডারমায় এ বার কংগ্রেস সমর্থিত ধর্মনিরপেক্ষ জোট প্রার্থী করেছে ঝাড়খণ্ডের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা ঝাড়খণ্ড বিকাশ মোর্চা (প্রজাতান্ত্রিক) বা জেভিএম(পি)-র সুপ্রিমো বাবুলাল মারাণ্ডিকে। অন্য দিকে প্রায় কাঁটা দিয়ে কাঁটা তুলতে বিজেপি প্রার্থী করেছে সদ্য প্রাক্তন আরজেডি নেত্রী অন্নপূর্ণাদেবীকে। ফলে এক দিকে মহাজোট আর অন্য দিকে বিজেপির মাঝেও স-ক্যারিশ্মায় উজ্জ্বল রাজকুমার।

[ আরও পড়ুন: ৩ দশক পর ফের বিহার থেকে সংসদে যাওয়ার জোরালো সম্ভাবনা এক মার্কসবাদী-লেনিনবাদী প্রার্থীর ]

লড়াই যে ত্রিমুখী- সে বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই, কিন্তু নজরকাড়া কেন্দ্রে এ বার রাজনৈতিক মহলের নজর সেই রাজকুমারেই উপরই। কারণ, এক দিকে যাদব ভোটব্যাঙ্কের কাটাকুটির অঙ্কে যেমন তাঁর ভোট পকেট ভরার সম্ভাবনা প্রবল, তেমনই ভূমিহার এবং কুশওয়ারদের একটা বড়ো অংশের সমর্থনও তাঁর দিকে যেতে পারে বলেই রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মত।

দেশ

এনকাউন্টারে হত বিকাশ দুবে

একটি গাড়িই শুক্রবার সকালে জাতীয় সড়কের ধারে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উলটে যায়। মনে করা হচ্ছে ওই গাড়িতেই দুবে ছিল।

খবরঅনলাইন ডেস্ক: পুলিশের সঙ্গে এনকাউন্টারে নিহত কানপুরের ‘ডন’ বিকাশ দুবে। যদিও গোটা ঘটনায় নতুন করে রহস্য তৈরি হয়েছে।

বিকাশ দুবেকে (Vikas Dubey) নিয়ে কানপুর আসার পথে শুক্রবার সকালে উলটে যায় পুলিশের গাড়ি। পুলিশের বক্তব্য, ওই ঘটনার সুযোগ নিয়ে পালানোর চেষ্টা করে দুবে। তখন তার উদ্দেশে গুলি চালায় পুলিশ। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথেই মৃত্যু হয় দুবের।

পুলিশের তিনটে স্করপিও গাড়ির একটি কনভয়ে দুবেকে কানপুরে (Kanpur) নিয়ে আসা হচ্ছিল। তাদের মধ্যে একটি গাড়িই শুক্রবার সকালে জাতীয় সড়কের ধারে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উলটে যায়। মনে করা হচ্ছে ওই গাড়িতেই দুবে ছিল।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার মধ্যপ্রদেশের উজ্জ্বয়িনীতে মহাকাল মন্দিরের (Mahakal Temple) কাছ থেকে গ্রেফতার করা হয় দুবেকে। গ্রেফতারের সময়ে তার হম্বিতম্বি জারি ছিল। পুলিশের উদ্দেশে তাকে বলতে শোনা যায়, “আমি বিকাশ দুবে, কানপুরওয়ালা।”

গত এক সপ্তাহ ধরে অবশ্য পুলিশের চোখে ধুলো দিয়ে বেরিয়েছে দুবে। এনকাউন্টারে তার তিন ঘনিষ্ঠ সহযোগী নিহত হলেও দুবের টিকিটিও ছুঁতে পারছিল না পুলিশ। হরিয়ানার ফরিদাবাদে একটি হোটেলের সিসিটিভি ফুটেজে দুবেকে দেখা গেলেও, ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছোনোর আগেই সে চম্পট দেয় সেখান থেকে।

উল্লেখ্য, গত সপ্তাহের বৃহস্পতিবার রাতে কানপুরে বিকাশ দুবেকে গ্রেফতার করতে অপারেশন চালায় পুলিশ। কিন্তু ‘সরষের মধ্যেই ভূত’ থাকায় সেই খবর আগেই জানতে পারে বিকাশ। ফলে পুলিশ আসার আগেই সমস্ত প্রস্তুতি সেরে রাখে সে।

ছাদে দাঁড়িয়েই নিজের অ্যাকশন স্কোয়াড থেকে গুলি করে মারে পুলিশকর্মীদের। মৃত্যু হয় আট জনের। তার পর থেকেই এই দুষ্কৃতীকে খুঁজতে মরিয়া হয়ে ওঠে পুলিশ। অবশেষে পুলিশ সাফল্য পায় দুবেকে গ্রেফতার করার ব্যাপারে। তবে শুক্রবারের দুর্ঘটনার পেছনে নতুন করে কোনো রহস্য রয়েছে কি না, সেই প্রশ্ন মাথাচাড়া দিচ্ছে।

উল্লেখ্য খুন, ডাকাতি, অপহরণ-সহ ৬০টি মামলা রয়েছে বিকাশের বিরুদ্ধে।

Continue Reading

দেশ

করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়লেও ভারতে এখনও গোষ্ঠী সংক্রমণ নেই: স্বাস্থ্যমন্ত্রক

এখনও পর্যন্ত এ দেশ গোষ্ঠী সংক্রমণের পর্যায়ে পৌঁছোয়নি বলে জানাল স্বাস্থ্যমন্ত্রক

নয়াদিল্লি: বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ভারতে মোট করোনাভাইরাস (Coronavirus) আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে সাত লক্ষের গণ্ডি ছাড়িয়েছে। তবে এখনও পর্যন্ত এ দেশ গোষ্ঠী সংক্রমণের পর্যায়ে পৌঁছোয়নি বলে জানাল স্বাস্থ্যমন্ত্রক।

বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানায়, “ভারত এখন পর্যন্ত গোষ্ঠী সংক্রমণ বা কমিউনিটি ট্রান্সমিশনের (community transmission) পর্যায়ে পৌঁছোয়নি। কিছু অঞ্চল বা জায়গায় শুধুমাত্র স্থানীয় প্রাদুর্ভাব (local outbreak) রয়েছে”।

নমুনা পরীক্ষার সঙ্গেই বাড়ছে শনাক্ত

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের যুগ্মসচিব পুণ্যসলিলা শ্রীবাস্তব এ দিনের সাংবাদিক বৈঠকে বলেন, ৮ জুলাই পর্যন্ত দিল্লিতে ৬,৭৯,৮৩১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর অর্থ প্রতি ১০ লক্ষ মানুষে ৩৫,৭৮০ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। দিল্লিতে প্রতিদিন গড়ে ২০ হাজার নমুনা পরীক্ষা হয়েছে।

একই সঙ্গে আইসিএমআরের সিনিয়র সায়েন্টিস্ট নিবেদিতা গুপ্তা বলেন, প্রতিদিনই নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা বাড়ছে। এখন প্রতিদিন সারা দেশে ২.৬ লক্ষ নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে। অ্যান্টিজেন টেস্টের প্রয়োগে এই সংখ্যা দ্রুত বাড়বে বলেই আশা করা হচ্ছে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের ওএসডি রাজেশ ভূষণ বলেন, “আমরা বিশ্বের দ্বিতীয় জনবহুল দেশ। ১৩০ কোটি জনসংখ্যা থাকা সত্ত্বেও অন্যান্য দেশের সঙ্গে তুলনামূলক ভাবে ভারত কোভিড -১৯ পরিচালনা করতে সক্ষম হয়েছে। আপনি যদি প্রতি ১০ লক্ষ জনসংখ্যার আক্রান্তের সংখ্যার দিকে তাকান, তা হলে এখনও বিশ্বের সর্বনিম্ন অবস্থানে রয়েছে আমাদের দেশ”।

সক্রিয় রোগীর অবস্থান

এ দিনই মন্ত্রিগোষ্ঠীর ১৮তম বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. হর্ষ বর্ধন। দেশের যে সমস্ত এলাকায় সংক্রমণ এবং আক্রান্তের মৃত্যুর হার অত্যধিক, সেই সমস্ত জায়গায় বাড়তি নজরদারি চালানোর কথা উল্লেখ করা হয়।

মন্ত্রিগোষ্ঠীর বৈঠকে পেশ করা তথ্য অনুযায়ী, আটটি রাজ্যে সারা দেশের প্রায় ৯০ শতাংশ সক্রিয় রোগী রয়েছেন। আটটি রাজ্যের তালিকায় রয়েছে মহারাষ্ট্র, দিল্লি, কর্নাটক, তেলঙ্গানা, অন্ধ্রপ্রদেশ, গুজরাত, তামিলনাড়ু এবং উত্তরপ্রদেশ। বিস্তারিত পড়ুন: সক্রিয় করোনা রোগীর ৯০ শতাংশই আটটি রাজ্যে!

মৃত্যুর হার

এ দিন সকালে স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানায়, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৭ লক্ষ ৬৭ হাজার ২৯৬। এর মধ্যে সক্রিয় রোগী রয়েছেন ২ লক্ষ ৬৯ হাজার ৭৮৯। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪ লক্ষ ৭৬ হাজার ৩৭৮। মারা গিয়েছেন ২১,১২৯ জন।

তবে বেশ কিছু রাজ্যে মৃত্যুর হার জাতীয় হারের থেকে অনেকটাই কম। দেখে নিন ভারতের বিভিন্ন রাজ্য আর কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে মৃত্যুহার কী রকম রয়েছে: করোনায় মৃত্যুহারে কে কোথায়

Continue Reading

দেশ

লকডাউন সফল করতে কম্যান্ডো মোতায়েন হল কেরলের গ্রামে

তিরুঅনন্তপুরম: করোনাভাইরাসের (Coronavirus) প্রকোপ কমাতে কেরলের তিরুঅনন্তপুরম শহরে আর ওই জেলার বেশ কিছু গ্রামে লকডাউন ঘোষণা করেছে পিনারাই বিজয়ন (Pinarayi Vijayan) সরকার। এর মধ্যে একটি গ্রামে লকডাউন যাতে কঠোর ভাবে পালন করা হয়, সে কারণে কম্যান্ডোও মোতায়েন করা হয়েছে।

জেলার সমুদ্রতীরবর্তী গ্রাম পুনথুরায় (Poonthura) ২৫ জন কম্যান্ডো মোতায়েন করা হয়েছে। ওই গ্রামের কয়েকটি ভিডিও প্রকাশ্যে এসেছে, সেখানে দেখা যাচ্ছে, কমান্ডো, অ্যাম্বুলেন্স এবং পুলিশ গোটা গ্রামের অলিগলিতে মধ্যে রীতিমতো টহল দিচ্ছে।

গ্রামের মানুষ যাতে অহেতুক বাড়ির বাইরে না বেরোয়, সে কারণে সতর্কও করা হচ্ছে। লাউড স্পিকারের ঘোষণা হচ্ছে, “যদি কাউকে অহেতুক ঘোরাঘুরি করতে দেখা যায় তবে সঙ্গে সঙ্গে কম্যান্ডোদের সহযোগিতায় তাঁদের ধরে অ্যাম্বুলেন্সে ঢুকিয়ে দেওয়া হবে এবং তাঁদের কোয়ারান্টাইন কেন্দ্র নিয়ে যাওয়া হবে”।

বিজয়ন সরকারের কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে, এই গ্রামে গত ৫ দিনে ৬০০ জনের করোনা টেস্ট করা হয়েছে যার মধ্যে মোট ১১৯ জন করোনা পজিটিভ হিসাবে ধরা পড়েছে। 

বিশেষজ্ঞদের মতে, কেরলে (Kerala) এই প্রথম স্থানীয় ভাবে করোনার সংক্রমণ ছড়ানোর উদাহরণ পাওয়া গেল। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে যত জন আক্রান্ত হয়েছেন সবাই হয় বিদেশ বা বাইরের রাজ্যের থেকে এসেছেন, কিংবা সেই সব আক্রান্তের সংস্পর্শে এসে আক্রান্ত হয়েছেন।

পুনথুরা এলাকার কনটেনমেন্ট জোনের দেখভালের দায়িত্বে থাকা এক আধিকারিক বলেন, “যাঁরা প্রথম দিকে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন, তাঁদের মধ্যে একজন মাছ ব্যবসায়ী ছিলেন যিনি ঘন ঘন তামিলনাড়ুতে যেতেন এবং সেখান থেকে মাছ এনে কুমারচাঁদা নামে একটি স্থানীয় বাজারে বিক্রি করতেন।”

ওই কর্তা আরও বলেন, ” এর পর এই গ্রামের যাঁরাই কোভিড পজিটিভ হয়েছেন, তাঁদের সকলের সঙ্গেই এই বাজারের যোগাযোগ রয়েছে।”

এই গ্রামের বেশির ভাগ মানুষই মাছ ধরার ওপরে নির্ভরশীল। এবং সে কারণে তাঁদের তামিলনাড়ুতেও ঘনঘন যেতে হয়। কিন্তু আপাতত কয়েক দিন সেই পথটি বন্ধ করেছে বিজয়ন সরকার।

এই গ্রামের কেউই আপাতত তামিলনাড়ু যাবেন না। আর তামিলনাড়ু গিয়ে যাঁরা নৌকোয় ফিরছেন, তাঁদেরও কেরল-তামিলনাড়ু জলসীমান্তে আটকে দেওয়া হচ্ছে। উপকূলরক্ষী বাহিনী, উপকূলীয় সুরক্ষা এবং মেরিন এনফোর্সমেন্ট উইংয়ের পর এই দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

Continue Reading
Advertisement
দেশ35 mins ago

এনকাউন্টারে হত বিকাশ দুবে

রাজ্য40 mins ago

সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে, তিন জেলায় নেই কোনো কনটেনমেন্ট জোন

ক্রিকেট8 hours ago

করোনাভাইরাস অতিমারির জের, ২০২১-এর জুন পর্যন্ত এশিয়া কাপ স্থগিত

কেনাকাটা11 hours ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

দঃ ২৪ পরগনা12 hours ago

‘গরিবের প্রাপ্য টাকা হজম করে দিচ্ছেন তৃণমূল নেতৃত্ব’, অভিযোগ শমীক লাহিড়ির

বিনোদন12 hours ago

শারীরিক দূরত্বের সঙ্গেই কেক কেটে নিজের জন্মদিন পালন করলেন সঙ্গীতা বিজলানি

ক্রিকেট12 hours ago

ক্যারিবিয়ান পেস-দাপটে উড়ে গেল ইংল্যান্ড ব্যাটিং

রাজ্য13 hours ago

কলকাতায় কমলেও এই প্রথম রাজ্যে নতুন করে আক্রান্ত হাজারের ওপর

দেশ23 hours ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ২৪৮৭৯, সুস্থ ১৯৫৪৭

কলকাতা2 days ago

কলকাতায় লকডাউনের আওতায় পড়া এলাকাগুলির পূর্ণাঙ্গ তালিকা প্রকাশিত

দেশ3 days ago

দ্রুত গতিতে বাড়ছে সুস্থতা, ভারতে এক সপ্তাহেই করোনামুক্ত লক্ষাধিক

রাজ্য3 days ago

পশ্চিমবঙ্গের বেশ কিছু জায়গায় ফের কড়া লকডাউনের জল্পনা

বিদেশ3 days ago

অনলাইনে ক্লাস করা ভিনদেশি পড়ুয়াদের আমেরিকা ছাড়তে হবে, নির্দেশ ডোনাল্ড ট্রাম্প সরকারের

ক্রিকেট2 days ago

১১৬ দিন পর শুরু আন্তর্জাতিক ক্রিকেট, হাঁটু গেড়ে বসে জর্জ ফ্লয়েডকে স্মরণ ক্রিকেটারদের

রাজ্য3 days ago

বৃহস্পতিবার বিকেল পাঁচটা থেকে রাজ্যের কনটেনমেন্ট জোনগুলিতে কড়া লকডাউন

কেনাকাটা3 days ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

কেনাকাটা

কেনাকাটা11 hours ago

ঘরের একঘেয়েমি আর ভালো লাগছে না? ঘরে বসেই ঘরের দেওয়ালকে বানান অন্য রকম

খবরঅনলাইন ডেস্ক : একে লকডাউন তার ওপর ঘরে থাকার একঘেয়েমি। মনটাকে বিষাদে ভরিয়ে দিচ্ছে। ঘরের রদবদল করুন। জিনিসপত্র এ-দিক থেকে...

কেনাকাটা3 days ago

বাচ্চার জন্য মাস্ক খুঁজছেন? এগুলোর মধ্যে একটা আপনার পছন্দ হবেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিউ নর্মালে মাস্ক পরাটাই দস্তুর। তা সে ছোটো হোক বা বড়ো। বিরক্ত লাগলেও বড়োরা নিজেরাই নিজেদেরকে বোঝায়।...

কেনাকাটা4 days ago

রান্নাঘরের টুকিটাকি প্রয়োজনে এই ১০টি সামগ্রী খুবই কাজের

খবরঅনলাইন ডেস্ক : লকডাউনের মধ্যে আনলক হলেও খুব দরকার ছাড়া বাইরে না বেরোনোই ভালো। আর বাইরে বেরোলেও নিউ নর্মালের সব...

কেনাকাটা5 days ago

হ্যান্ড স্যানিটাইজারে ৩১ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে অ্যামাজন

অনলাইনে খুচরো বিক্রেতা অ্যামাজন ক্রেতার চাহিদার কথা মাথায় রেখে ঢেলে সাজিয়েছে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের সম্ভার।

নজরে