dmk stalin azagiri, karunanidhi
কে হবে দলের সব? ছবি: ওয়ানইন্ডিয়া

চেন্নাই: ডিএমকে সুপ্রিমো করুণানিধির মৃত্যুর পরে দলের উত্তরাধিকার নিয়ে প্রকাশ্যে এসে গেল তাঁর দুই ছেলের দ্বন্দ। দু’জনেরই দাবি প্রকৃত উত্তরাধিকার তাঁরা নিজেরাই।

বর্তমানে ডিএমকে কার্যকরী সভাপতি করুণার ছোটো ছেলে স্টালিন। হিসেবমতো দলের সুপ্রিমো তাঁরই হওয়ার কথা। কিন্তু তাঁর সেই আশায় জল ঢেলে দিতে বদ্ধপরিকর বড়ো ছেলে আলাগিরি। সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, অত সহজে যুদ্ধ ছাড়তে রাজি নন তিনি।

চেন্নাইয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে আলাগিরি বলেন, “দলের সত্যিকারের সমর্থকরা আমরা সঙ্গে রয়েছে। সময় হলে আমি যোগ্য জবাব দেন। চারিদিকে যা হচ্ছে আমি তাতে ব্যথিত।”

একটা সময় ছিল যখন আলিগিরিকেই করুণানিধির উত্তরসূরি হিসেবে গণ্য করা হত। তামিলনাড়ুর মাদুরাইয়ে ডিএমকে রাজনীতির সব কিছুর সর্বেসর্বা হয়ে উঠেছিলেন তিনি। সেখান থেকে ২০০৯-এর লোকসভা নির্বাচন জিতে দ্বিতীয় ইউপিএ সরকারের মন্ত্রীও হন তিনি।

আরও পড়ুন রাজনীতিকে চলচ্চিত্রের অধীন করে দিয়েছিলেন তিনি

কিন্তু এর পরেই বাবার সঙ্গে ছেলের সম্পর্ক ক্রমশ খারাপ হতে শুরু করে। দলে ছোটো ছেলে স্টালিনের দায়িত্ব আরও বাড়িয়ে দেন করুণা। চার বছর আগে ডিএমকে থেকে আলাগিরিকে বহিষ্কার করে দেওয়া হয়।

মনে করা হচ্ছিল, করুণানিধির মৃত্যুর পরে দুই ভাইয়ের মধ্যে সম্পর্ক জোড়া লাগবে। কিন্তু সে রকম কোনো সম্ভাবনা এখন আর দেখা যাচ্ছে না, বরং ফাটল আরও বেড়ে গিয়েছে।

তবে দলীয় সূত্রে খবর, সেপ্টেম্বরে সাধারণ সভার ডাক দেবে ডিএমকে, সেখানেই সম্ভবত সভাপতি হিসেবে স্টালিনকে নির্বাচিত করা হবে।

এ দিকে আলাগিরির এই মন্তব্যের তীব্র বিরোধিতা করেছেন ডিএমকের সাধারণ সম্পাদক কে আম্বালাগান। তিনি বলেন, “আলাগিরি দলের কেউ নয়। তাই তাঁর কথাকে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়ার কোনো মানে হয় না।” সব মিলিয়ে ভাইয়ে ভাইয়ে লড়াই এখন এক মাহেন্দ্রক্ষণে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন