ভ্যাকসিন কবে আসবে, কাদের প্রথমে দেওয়া হবে? আজ জানাবেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী

0

খবর অনলাইন ডেস্ক: ভারত কবে করোনা ভ্যাকসিন পাবে? ভ্যাকসিন আসার পর প্রথমে কাদের তা দেওয়া হবে?

কোভিড ভ্যাকসিন সংক্রান্ত এ জাতীয় যাবতীয় প্রশ্নের উত্তর রবিবার বেলা ১টায় জানাবেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. হর্ষ বর্ধন।

Loading videos...

এ দিন নিজের সাপ্তাহিক অনুষ্ঠান ‘সানডে সংবাদ’-এ অংশ নেবেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী। ওই অনুষ্ঠানেই এই প্রশ্নগুলির উত্তর পাওয়া যাবে বলে টুইট করে জানান তিনি নিজেই।

টুইটারে তিনি শনিবার লিখেছেন, “ভারতের কোভিড ভ্যাকসিন পরিকল্পনা জানতে আগামীকাল বেলা ১টা সানডে সংবাদে চোখ রাখুন। আমরা কখন টিকা পাব? প্রথমে কাদের এই টিকা দেওয়া হবে? ২০২১ সালের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকের জন্য কোভিড টিকা নিয়ে ভারত কী লক্ষ্য স্থির করেছে? ইত্যাদি প্রশ্নের উত্তর মিলবে”।

আপডেট দেখুন: জুলাইয়ের মধ্যে প্রায় ২৫ কোটি মানুষের টিকাকরণ, ঘোষণা কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর

ওয়াকিবহাল মহলের মতে, টিকাকরণ নিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশই নিজের মতো করে একটি প্রাথমিক পরিকল্পনা নিয়েছে। তবে ভারতের মতো বৃহৎ জনসংখ্যার দেশে এ ব্যাপারে একাধিক পদ্ধতির কথা ভাবতে হবে।

সে ক্ষেত্রে পুলিশ, পুরসভার কর্মচারী এবং নার্স, চিকিৎসা কর্মী, চিকিৎসকদের মতো করোনার বিরুদ্ধে প্রথমসারির কর্মীদের টিকাকরণে অগ্রাধিকার দেওয়া হতে পারে। যেহেতু তাঁদের সুস্থতার সঙ্গে সমাজের বৃহত্তর অংশের স্বার্থ জড়িয়ে রয়েছে।

একই ভাবে, বয়স্ক ব্যক্তিদের ভাইরাস থেকে বেশি ঝুঁকির সম্ভাবনা বেশি। ফলে তাঁদের অগ্রাধিকার দেওয়া উচিত। তবে তার আগে পরীক্ষায় নিশ্চিত করতে হবে যে, বয়স্কদের মধ্যে ভ্যাকসিনের নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া থাকবে না।

এ ছাড়া একটি নির্দিষ্ট ভৌগলিক অবস্থানের ভিত্তিতে টিকাকরণ চলতে পারে। যেখানে সংক্রমণের হার বেশি, সেই এলাকাকে বেছে নেওয়া হতে পারে। আবার যেখানে প্রাকৃতিক অনাক্রম্যতা গড়ে ওঠার ব্যাপার রয়েছে, সেই বিষয়টিও মাথায় রেখে সেখানকার নির্দিষ্ট সংখ্যক মানুষকে ভ্য়াকসিন দেওয়া যেতে পারে।

তবে কেন্দ্রের সংশ্লিষ্ট কমিটির সাম্প্রতিক একটি বৈঠকে স্থির হয়েছে, সমস্ত দিক বিচার করে দেশে করোনার প্রতিষেধক দেওয়ার জন্য উপযুক্ত পদ্ধতি নির্বাচন করা হবে। সে ক্ষেত্রে ভারতের মতো বিশাল জনসংখ্যার দেশে যাতে সর্বত্র সমান এবং দীর্ঘমেয়াদি সুবিধা পাওয়া যায়, সে দিকে লক্ষ্য রেখেই পদ্ধতি নির্ধারিত হতে পারে।

ক’দিন আগেই করোনা ভ্য়াকসিনের যথাযথ সরবরাহ পদ্ধতি এবং সংরক্ষণের উপর গুরুত্ব দিয়ে রাজ্যে এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে আগামী ১৫ অক্টোবরের মধ্যে পরিকল্পনা তৈরির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে কেন্দ্রের তরফে। আরও পড়তে পারেন: ১৫ অক্টোবরের মধ্যে রাজ্যগুলিকে টিকাকরণের পরিকল্পনা তৈরির নির্দেশ কেন্দ্রের

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন