নয়াদিল্লি: ঊনচল্লিশ মাসে সর্বোচ্চ মাত্রায় পৌঁছল পাইকারি মুদ্রাস্ফীতি। খাদ্য এবং তৈল সামগ্রীর দাম বাড়ার প্রভাবে ফেব্রুয়ারিতে এই মুদ্রাস্ফীতির হার ছুঁয়েছে ৬.৫৫ শতাংশ।

উল্লেখ্য জানুয়ারিতে ‘হোলসেল প্রাইস ইনডেক্স’ (ডব্লিউপিআই) ছিল ৫.২৫ শতাংশ। মঙ্গলবার প্রকাশিত সরকারি তথ্যে আরও জানা গিয়েছে যে ফেব্রুয়ারি মাসে খাদ্য সামগ্রীর দাম বেড়েছে ২.৬৯ শতাংশ। যদিও জানুয়ারি মাসে খাদ্য সামগ্রীর দাম কমেছিল ০.৫৬ হারে। চাল, ফল, বীজশষ্যের দাম বাড়ার প্রভাবেই এই মুদ্রাস্ফীতি বলে মনে করা হচ্ছে।

ডিসেম্বরে পাইকারি মুদ্রাস্ফীতি সংক্রান্ত তথ্য সংশোধন করেছে সরকার। সে মাসে মুদ্রাস্ফীতির হার আদতে ছিল ৩.৬৮ শতাংশ। যদিও সরকারি তথ্য মুদ্রাস্ফীতির হারকে রেখেছিল ৩.৩৯ শতাংশে।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন