প্রতীক হাজেলা। ছবি: পিটিআই

ওয়েবডেস্ক: অসমের নাগরিকপঞ্জিতে নাম-না-থাকা মানুষদের এখনই ঠারেঠোরে বেআইনি অনুপ্রবেশকারীর তকমা লাগিয়ে দিয়েছেন অনেকে। বিজেপি সভাপতি অমিত শাহও তাঁর অনুপ্রবেশকারী হঠানো মন্তব্যে আকারে ইঙ্গিতে বুঝিয়ে দিয়েছেন এঁরা সবাই অনুপ্রবেশকারী। কিন্তু এমনটা মনে করেন না নাগরিকপঞ্জির সমন্নয়ক প্রতীক হাজেলা।

একটা খসড়া থেকেই নাম বাদ পড়া মানেই তাঁদের বেআইনি অনুপ্রবেশকারীর তকমা দিতে হবে, এই ব্যাপারে নারাজ হাজেলা। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, “না কোনো ভাবেই এই ৪০ লক্ষ মানুষকে অনুপ্রবেশকারী বলা যাবে না।”

আরও পড়ুন ভোটার লিস্টে নাম থাকলেই ভোট দেওয়া যাবে, নাগরিকপঞ্জি প্রসঙ্গে বলল কমিশন

তিনি আরও বলেন, “যাঁদের নাম বাদ পড়েছে তাঁরা পুনরায় আবেদন করতে পারবেন। তার পর চূড়ান্ত তালিকা তৈরি হবে। নাগরিকপঞ্জির প্রক্রিয়া শেষ হয়ে যাবে। কিন্তু তার পরও শুধুমাত্র বিচারবিভাগের দ্বারা পুঙ্খনাপুঙ্খ তদন্তের পরেই কেউ অনুপ্রবেশকারী কি না, সেটা  বিচার্য হবে।”

নাগরিকপঞ্জির এই খসড়া তৈরি করতে গিয়ে ভুলত্রুটি হয়ে থাকতে পারে বলে স্বীকার করে নেন হাজেলা। তবে একটা সময়ে যখন নাগরিকপঞ্জি নিয়ে বিজেপি এবং বিরোধীদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা চলছে তখন হাজেলার এই মন্তব্য যথেষ্ট ইঙ্গিতবাহক।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন