নয়াদিল্লি: আপনি যদি বুধবারের কোনো সংবাদে পড়ে থাকেন, কেন্দ্র ১০ সংখ্যার মোবাইল নম্বরের জায়গায় ১৩ সংখ্যা নিয়ে আসতে চলেছে, তা হলে সেই সংবাদটি অবশ্য এড়িয়ে চলুন। কারণ ডিপার্টমেন্ট অব টেলিকমিউনিকেশন (ডট) জানিয়ে দিল, এই ধরনের কোনো পরিকল্পনা তাদের হাতে নেই। কিছু সংবাদ মাধ্যম এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়া ওই খবর সঠিক নয়।

ডট জানিয়েছে, ১৩ সংখ্যার নম্বরের কথা বলা হয়েছিল মেশিন টু মেশিন (এম টু এম) সিমের ক্ষেত্রে। মোবাইল ব্যতীত কোনো ডিভাইস বা মেশিনে যে সিম ব্যবহার করা হয়ে থাকে, সেগুলির নম্বরই ১৩ সংখ্যা হবে বলে জানানো হয়েছিল। কিন্তু তার যথাযথ প্রয়োগ না করেই মোবাইল সিমের সঙ্গে তা গুলিয়ে ফেলা হয়েছে।

ঠিক কী বলা হয়েছিল ওই ত্রুটিপূর্ণ সংবাদে?

নিরাপত্তা বাড়াতে একের পর এক পদক্ষেপ সরকারের। ভোটার আই কার্ডকে টপকে বায়োমেট্রিক প্রুফ যুক্ত আধার কার্ড চালু হল। প্যান কার্ডের ভুয়ো নম্বর বাছতে, নিরাপত্তার স্বার্থে প্যান নম্বরের সঙ্গে আধার সংযুক্তিকরণ করা হল। তার পর ফোন নম্বরের বৈধতা প্রমাণ আর সন্ত্রাসবাদী ঠেকাতে মোবাইল ফোন নম্বরের সঙ্গে আধার কার্ড যুক্ত করা শুরু হল। এই নিয়ে গত কয়েক বছরে দেশবাসীর প্রায় নাজেহাল অবস্থা। নিরাপত্তা এতটাই জোরদার যে অত্যাবশ্যক ক্ষেত্রেও আধার সংযুক্তি নিয়ে মারকাটারি অবস্থা বিভিন্ন পরিষেবা সংস্থার সঙ্গে গ্রাহকদের। তাই নিয়ে খবরের হেডলাইনও হয়েছে বেশ কিছু ঘটনা। এ বার নাকি নিরাপত্তার জাল আরও সূক্ষ করা হবে। তাই মোবাইল নম্বরের সংখ্যার বেড়া আরও দীর্ঘ করার পথে হাঁটতে চলেছে যোগাযোগ মন্ত্রক।

গ্রাহকদের নিরাপত্তার স্বার্থে মোবাইল নম্বরের সংখ্যা বাড়াতে চলেছে যোগাযোগ মন্ত্রক। এই সম্পর্কে ইতিমধ্যেই সবক’টি টেলিকম সংস্থার কাছে নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে। চলতি বছরেই সব ক’টি মোবাইল নম্বরকে ১০ থেকে বাড়িয়ে ১৩ সংখ্যার করা হবে। পুরনো নম্বরগুলিকে আগামী ১ অক্টোবর থেকে ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে পরিবর্তন করা হবে। আর নতুন নম্বরের ক্ষেত্রে ১ জুলাই থেকে দেওয়া হবে ১৩ সংখ্যার নম্বরই। বিএসএনএল-র পক্ষ থেকে বলা হয়েছে এই বিষয়ে ২০১৮ সালের ১৮ জানুয়ারিই নির্দেশিকা জারি করেছে মন্ত্রক।

ট্রাইকে একটি চিঠিতে যোগাযোগ মন্ত্রকের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এই ব্যবস্থা অনুমোদিত হয়েছে সিম বেসড মেশিন ২ মেশিন (এম২এম) ডিভাইসের জন্য। এম২এম ডিভাইস হল সেই সব যন্ত্র, যেগুলি একটি যন্ত্র থেকে আর একটি যন্ত্রে বা সেনসারে বা বস্তুর সঙ্গে সংযোগ সাধন করতে পারবে। এই সিম মোবাইল ফোনেও ব্যবহার করা যাবে।

প্রসঙ্গত, যদি এই ব্যবস্থা বাস্তবায়িত হয় তা হলে এ দেশের মোবাইল নম্বর বিশ্বের সবচেয়ে লম্বা বা বেশি সংখ্যার নম্বর হওয়ার রেকর্ড করবে। ভাবা যায় আরও একটা রেকর্ডের ভার চাপবে দেশের ঘাড়ে। যাইহোক, এখনও পর্যন্ত চিনেই রয়েছে সব থেকে বেশি সংখ্যার নম্বর। এলাকা ভিত্তিক কোড বাদ দিয়ে চিনের মোবাইল নম্বর ১১ সংখ্যার। এ ছাড়াও ফ্রান্সের কিছু নম্বর বেশ লম্বা।