৭৬ ছুঁলেও কেন আডবাণী-জোশীর নীতি মানা হয় না ইয়েদিউরাপ্পার ক্ষেত্রে?

0

ওয়েবডেস্ক: তিনি কর্নাটক বিজেপির কার্যত সর্বেসর্বা। আর তাই লালকৃষ্ণ আডবাণী বা মুরলিমনোহর জোশীর মতো প্রবীণ নেতাদের ক্ষেত্রে বিজেপি যে নীতি নিয়ে চলে, তা বিএস ইয়েদিউরাপ্পার ক্ষেত্রে মানা হয় না।

৭৫ পেরিয়ে গেলে সক্রিয় রাজনীতিতে থাকা যায় না। এমনই অলিখিত নিয়ম তৈরি হয়েছে বিজেপিতে। তাই এ বার লোকসভা নির্বাচনে আডবাণী-জোশীকে প্রার্থী তো করা হয়ইনি, পাশাপাশি ভোটে দাঁড়াতে রাজি হননি প্রাক্তন স্পিকার সুমিত্রা মহাজনও। কিন্তু এ সব নীতি মানা হয় না ইয়েদিউরাপ্পার ক্ষেত্রে।

এমনকি ‘ওয়ান ম্যান ওয়ান পোস্ট’ যে নীতি দলের রয়েছে সেটাও তাঁর ক্ষেত্রে কার্যকর নয়। তিনি একাধারে কর্নাটকের বিরোধী দলনেতা তথা বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী, তেমনই রাজ্য বিজেপির প্রধানও।

কিন্তু কেন ইয়েদিউরাপ্পার ক্ষেত্রে অন্য নিয়ম? এই প্রসঙ্গে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিজেপির এক নেতা বলেন, “কর্নাটকে এমন কেউ নেতা নেই, যাকে ইয়েদিউরাপ্পার পরিবর্ত হিসেবে তুলে ধরা যায়।”

আরও পড়ুন দক্ষিণ দিনাজপুরের পর বাঁকুড়াতেও সিপিএম নেতার ‘ঘর ওয়াপসি’

কর্নাটকেও বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব রয়েছে। দলের একাধিক প্রথম সারির নেতাও রয়েছেন। ইয়েদিউরাপ্পাকে পছন্দ করেন না, এমনও নেতা রয়েছে, কিন্তু তবুও ইয়েদিউরাপ্পার মতো প্রভাব আর কারও নেই। ইয়েদিউরাপ্পার জায়গায় সদানন্দ গৌড়া এবং জগদীশ শেট্টার মুখ্যমন্ত্রীর পদ সামলেছেন, কিন্তু কেউই ইয়েদিউরাপ্পাকে চ্যালেঞ্জ করতে পারেননি।

কর্নাটকের রাজনীতিতে লিঙ্গায়েত গোষ্ঠীর প্রভাব যথেষ্ট। এই গোষ্ঠীর মধ্যে ইয়েদিউরাপ্পার প্রভাব রয়েছে ভালোমতোই। এমনকি ২০১৩-তে যখন বিজেপি ছেড়ে কর্নাটক জাতীয় পক্ষ নামক নতুন দল করে বিধানসভা ভোটে গিয়েছিলেন ইয়েদিউরাপ্পা, তখন লিঙ্গায়েতদের ভোটের কার্যত পুরোটাই বিজেপির বিপক্ষে গিয়েছিল।

এই কারণেই কর্নাটকে কার্যত ‘ওয়ান ম্যান আর্মি’ ইয়েদিউরাপ্পা। বর্তমান টালমাটাল পরিস্থিতিতে তাঁর নতুন করে মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার সম্ভাবনা বেশ উজ্জ্বল। মুখ্যমন্ত্রীর আসনে নতুন করে বসার সুযোগ ইয়েড্ডির কাছে আসে কি না, সেটাই দেখার।

------------------------------------------------
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।
সুস্থ, নিরপেক্ষ সাংবাদিকতার স্বার্থে খবর অনলাইনের পাশে থাকুন।সাবস্ক্রাইব করুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.