prakash raj

ওয়েবডেস্ক: কর্নাটকের নতুন মুখ্যমন্ত্রী এইচ ডি কুমারস্বামীর শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছেন পাঁচ রাজ্যের বর্তমান এবং প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী-সহ দেশের তাবড় রাজনৈতিক দলের উচ্চ নেতৃত্ব। এমনকী অভিনেতা কমল হাসনও। কিন্তু দেখা মেলেনি দক্ষিণী ও মুম্বই ছবির আর এক অভিনেতা প্রকাশ রাজের। অথচ নির্বাচন প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার অনেক আগে থেকেই তিনি সুর চড়িয়েছেন বিজেপির বিরুদ্ধে। ঠিক কী কারণে প্রকাশ অনুপস্থিত?

আরও পড়ুন: এ বার ‘জয় ভারত’ ধ্বনিতে মাত করলেন প্রকাশ রাজ, বিজেপিকে পাল্টা?

শোনা যায়, ছাত্র জীবন থেকেই বামপন্থী রাজনীতির প্রতি আস্থাবান প্রকাশ। মাঝে এমনটাও শোনা গিয়েছিল তিনি নাকি উগ্র বামপন্থার মতাদর্শী। কিন্তু সাম্প্রতিক কালে কেরলের কান্নুর জেলার কিঝাত্তুর এলাকার চাষের জমির উপর দিয়ে প্রস্তাবিত ন্যাশনাল হাইওয়ে বাইপাসের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে শামিল স্থানীয় কৃষকের পাশে দাঁড়িয়েছেন তিনি। কেরলের বামপন্থী সরকারকে হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন। আবার বিজেপির নিরবচ্ছিন্ন আক্রমণের মুখে পড়েও স্পষ্টভাষায় জানিয়েছেন, তিনি কোনো রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিত্ব করছেন না।

আরও পড়ুন: বিজেপির বিরুদ্ধে এতটা আক্রমণাত্মক হতে দেখা যায়নি অভিনেতা প্রকাশ রাজকে

কর্নাটক ভোটের আগে থেকেই নিজের বিশেষ কর্মসূচি ‘জাস্ট আস্কিং’ নিয়ে পৌঁছে গিয়েছেন রাজ্যের প্রতিটি প্রান্তে। সাংবাদিক এবং সাধারণ মানুষের কাছে তুলে ধরেছেন বিজেপির সাম্প্রদায়িক রাজনীতির চাল। প্রকাশ প্রকাশ্যে আবেদন করেছেন, আর যাই হোক বিজেপিকে ভোট না দিতে।

আরও পড়ুন: এ বার বিজেপিকে ভোট না দেওয়ার কথা বললেন অভিনেতা প্রকাশ রাজ!

আসলে প্রকাশ এখন গভীর মনোনিবেশ করেছেন তামিলনাড়ুতে। নিজের ‘জাস্ট আস্কিং’ কর্মসূচি নিয়ে তিনি সম্ভবত পাড়ি দিতে পারেন সে রাজ্যে। তুতিকোরিনে স্টারলাইট তামা কারকানার দূষণের বিরুদ্ধে গর্জে ওটা নিরস্ত্র মানুষের উপর যে ভাবে নির্বিচারে গুলি চালানো হয়েছে, প্রকাশ এখন সরব হয়েছেন সেই মর্মান্তিক ঘটনার প্রতিবাদে।

আরও পড়ুন: ‘সর্দিকাশি পরে, আগে ক্যানসারমুক্ত হওয়া দরকার,’ বিজেপি প্রসঙ্গে প্রকাশ রাজ

নিজেকে কোনো নির্দিষ্ট রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধি হিসাবে প্রতিষ্ঠা না দিতেই কি তিনি এড়ালেন কর্নাটকের মুখ্যমন্ত্রীর শপথগ্রহণ, উঠছে তেমন প্রশ্নও।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here