rape and murder

ওয়েবডেস্ক: উত্তরপ্রদেশের উন্নাও এবং জম্মু-কাশ্মীরের কাথুয়ায় ধর্ষণ এবং হত্যা কাণ্ড নিয়ে তোলপাড় সারা দেশ। বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতৃত্বের মতোই কাথুয়া কাণ্ডে সরব হয়েছেন কেন্দ্রের দুই মন্ত্রী ভি কে সিং এবং মানেকা গান্ধী। কিন্তু এখনও পর্যন্ত কোনো মন্তব্য করতে শোনা যায়নি স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে। কেন? কবেই বা তিনি অপরাধীদের আড়াল করার ঘৃণ্য অপচেষ্টা নিয়ে মুখ খুলবেন, প্রশ্ন তুললেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী।

গত মঙ্গলবার উন্নাওয়ের এক নির্যাতিতা বিজেপি বিধায়কের চরম লাঞ্ছনা শিকার হয়ে বিচার বঞ্চনার বিরুদ্ধে সরব হন। পুলিশ তাঁকে প্রথমে সহযোগিতা না করতে চাইলেও আদালত কিন্তু নির্যাতিতার পক্ষেই রায় দিয়েছে। পুলিশ অভিযুক্তকে আটক করার কথা বললেও আদালত বলেছে, আটক নয়, গ্রেফতার করা হোক। অন্য দিকে জম্মুর আট বছরের শিশুকন্যা আসিফার ধর্ষক ও হত্যাকারীদের বাঁচাতে প্রকাশ্যে পথে নেমেছেন শাসক দলের নেতারা। স্থানীয় বিজেপি সাংসদ দাবি করেছেন, এই ঘটনার সঙ্গে পাকিস্তানের যোগ রয়েছে। অপরাধীদের মুক্তির দাবিতে একটি সংগঠন জাতীয় পতাকা নিয়ে মিছিল পর্যন্ত সংগঠিত করেছে। রাহুলের প্রশ্ন, মানবিকতা কোথায় গিয়ে পৌঁছচ্ছে?

নিজের টুইটারে নিয়মিত যোগাসন নিয়ে জ্ঞান পরিবেশনে ছেড পড়ে না প্রধানমন্ত্রীর। বছরভর নিয়মিত চলে তাঁর রেডিও অনুষ্ঠান ‘মন কি বাত’। অথচ নারী ও শিশুদের উপর হিংসাত্মক কার্যকলাপের বহর বাড়তে থাকলেও মোদী এখনও পর্যন্ত একটি বাক্যও ব্যয় করছেন। রাহুল বলেছেন, “প্রধানমন্ত্রী আপনাকে মুখ খুলতেই হবে, ভারত আপনার কাছে জানতে চায়”।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন