Masood Azhar
মাসুদ আজহার। ফাইল ছবি

ওয়েবডেস্ক: বালাকোটের ঘটনা এখন ‘অতীত।’ এ বার নানা রকম কূটনৈতিক পদ্ধতিতে পাকিস্তানকে ঘায়েল করার চিন্তাভাবনা শুরু করে দিয়েছে ভারত। বিভিন্ন সূত্রে এমনই জানা যাচ্ছে।

সেই সঙ্গে পাকিস্তানের প্রতি হুঁশিয়ারি দিয়ে এটাও বলা হয়েছে, “ভবিষ্যতে যদি আবার বড়ো ধরনের জঙ্গি হামলা হয়, এবং তার উৎস যদি পাকিস্তান থেকে হয়, তা হলে সব পথ খোলা আছে।” ফলে আবার হামলা হলে, ভারত যে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে সামরিক অভিযানেও যেতে পারে, সে কথাই বলা হয়েছে। তবে এর পাশাপাশি এ-ও বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে যে আপাতত পাকিস্তানের মাটিতে হয়তো কোনো অভিযান নয়, বরং কূটনৈতিক পথেই পাকিস্তানকে ঘায়েল করতে চাইছে ভারত।

কূটনৈতিক ব্যবস্থা কী কী নেওয়া যেতে পারে?

প্রথমত, রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদে নিজেদের দাবি পেশ করা যাতে মাসুদ আজহারকে আন্তর্জাতিক জঙ্গির তালিকায় নিয়ে আসা যায়; দ্বিতীয়ত, ফিনান্সিয়াল অ্যাকশন টাস্ক ফোর্সকে দিয়ে পাকিস্তানের ওপরে চাপ সৃষ্টি করানো; তৃতীয়ত বন্ধু দেশদের দিয়ে পাকিস্তানের ওপরে সরাসরি কূটনৈতিক চাপ দেওয়ানো যাতে তারা লস্কর, জইশ-সহ বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হয়।

আরও পড়ুন আটক করা হল জইশ-ই-মহম্মদ প্রধান মাসুদ আজহারের ভাই মুফতি আবদুল রউফকে

বর্তমানের পাঁচ স্থায়ী সদস্য ছাড়াও রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদে রয়েছে, বেলজিয়াম, আইভরি কোস্ট, ডমিনিকান রিপাবলিক, গিনি, জার্মানি, ইন্দোনেশিয়া, কুয়েত, পেরু, পোল্যান্ড এবং দক্ষিণ আফ্রিকা।

চিন থেকে সদর্থক বার্তা

সূত্রের দাবি, মাসুদ আজহারকে আন্তর্জাতিক জঙ্গির তালিকাভুক্ত করার ক্ষেত্রে চিন আবার বাধা হয়ে দাঁড়াবে কি না, এখনই বলা যাচ্ছে না, কিন্তু এ বার চিন থেকে এমন বার্তা এসেছে, যা ভারতের দাবিকে আরও শক্ত করে তুলছে।

সরকারি এক আধিকারিক বলেন, “আন্তর্জাতিক জঙ্গিদের তালিকায় মাসুদ আজহারকে আনা গেলে, একটা বড়ো ব্যাপার হবে।” এটা করা গেলে পাকিস্তানকে বাধ্য করা যাবে জঙ্গিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য, এমনই জানিয়েছেন তিনি।

এ দিকে ফিনান্সিয়াল টাস্ক ফোর্স জানিয়ে দিয়েছে, এ বছর মে পর্যন্ত সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে কোনো সদর্থক ভূমিকা না নিলে বছরের শেষ দিকে পাকিস্তানকে কালো তালিকাভুক্ত করা হবে। তাই আগামী কয়েক মাস পাকিস্তান কোন পথে হাঁটে সেই দিকে নজর রাখবে ভারত।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন