এক ডজন সিংহ পরিবৃত হয়ে সন্তানের জন্ম দিলেন মঙ্গুবেন

0
247

আমদাবাদ: মঙ্গুবেন মাকওয়ানা ২৯ জুনের রাতটা কখনও ভুলতে পারবেন না। সে দিন গভীর রাতে তিনি গিরের জঙ্গলের কাছেই অ্যাম্বুল্যান্সের মধ্যে জন্ম দিলেন এক পুত্রসন্তানের। কিন্তু তার জন্য নয়, চলন্ত যানে প্রসব করা কোনো বিরল ঘটনা নয়। এই রাত তাঁর কাছে স্মরণীয় হয়ে থাকবে অন্য কারণে। ৩২ বছরের মঙ্গুবেন সে দিন সন্তানের জন্ম দিলেন এক ডজন সিংহ পরিবৃত হয়ে।

এই অগ্নিপরীক্ষার মতো অবস্থা চলেছিল ২০ মিনিট ধরে। এক দিকে ‘১০৮’ অ্যাম্বুল্যান্সের প্যারামেডিক কর্মীরা সাহস আর ধৈর্যের সঙ্গে পরিস্থিতির মোকাবিলা করে মঙ্গুবেনের প্রসব করাচ্ছেন আর অন্য দিকে সিংহের দল পথ অবরোধ করে বসে আছে। এদের মধ্যে তিনটি কেশরওয়ালা পুরুষসিংহ।

সে দিন ঠিক কী ঘটেছিল? আমরেলির ‘১০৮’ অ্যাম্বুল্যান্সের এমার্জেন্সি ম্যানেজমেন্ট একজিকিউটিভ চেতন গাধের মুখ থেকেই শোনা যাক ঘটনাটা।

তখন রাত আড়াইটে। আমরেলি জেলার লুনাসাপুর গ্রাম থেকে ‘১০৮’ অ্যাম্বুল্যান্স মঙ্গুবেনকে নিয়ে চলেছে জাফরাবাদ শহরের সরকারি হাসপাতালে। কর্তব্যরত এমার্জেন্সি ম্যানেজমেন্ট টেকনিশিয়ান (ইএমটি) অশোক মাকওয়ানা বুঝতে পারলেন মঙ্গুবেন যে কোনো সময়ে প্রসব করবেন, কারণ জাতকের মাথা বেরিয়ে এসেছে। পরিস্থিতি খুবই জরুরি। তাই চালক রাজু যাদবকে মাঝপথে অ্যাম্বুল্যান্স থামাতে বললেন।

গভীর রাত। শুনশান পথ, যে পথ গিয়েছে একেবারে গিরের জঙ্গলের পাশ দিয়ে। রাজু গাড়ি থামিয়ে দিলেন। কী ভাবে প্রসব করাতে হবে তা বুঝে নেওয়ার জন্য অশোক ফোনে কথা বলছেন এক চিকিৎসকের সঙ্গে। তখনই রাজু দেখলেন, পাশের ঝোপঝাড় থেকে বেরিয়ে এল সিংহের। মানুষের গন্ধ পেয়েছে তারা। একটা নয়, দু’টো নয়, রাজু গুনে দেখলেন একাবারে ১২টা। এদের মধ্যে তিনটি পূর্ণ পুরুষ। গুটি কয়েক বসে পড়ল গাড়ির একেবারে সামনে। আর বাকিগুলো ঘিরে ধরল অ্যাম্বুল্যান্সটাকে।

অশোক দেখলেন। একেবারেই আতঙ্কিত হলেন না। ডাক্তারের পরামর্শ শুনে ধীর স্থির ভাবে প্রসব করাতে লাগলেন। আর সিংহগুলোর গিতিবিধির ওপর নজর রাখতে লাগলেন। রাজু স্থানীয় মানুষ, পশুগুলোর ভাবগতিক কিছু বোঝেন। সিংহগুলোকে তাড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করলেন, কিন্তু তারা নট নড়নচড়ন। ঘাঁটি গেড়ে বসে থাকল। প্রসবকাজ সম্পূর্ণ হয়ে যাওয়ার পর রাজু গাড়িটি স্টার্ট করে একটু একটু করে এগিয়ে নিয়ে যেতে লাগলেন। গাড়িটি ক্রমে এগিয়ে আসছে, তার ওপর হেডলাইটের তীব্র আলোয় ধাঁধিয়ে যাচ্ছে চোখ। শেষ পর্যন্ত হাল ছেড়ে দিল তারা, পথ করে দিল অ্যাম্বুল্যান্সের।

নবজাতক-সহ মঙ্গুবেনকে জাফরাবাদ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মাতা-পুত্র বেশ ভালো আছে। এই খবর দিয়েছে পিটিআই।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here